BengaliTut.Com

Friday, February 15, 2019

নতুন YouTuber দের জন্য কিছু কথা ও টিপস

February 15, 2019 0

ইউটিউবে কাজ শুরুর আগে কিছু প্রাক-প্রস্তুতি আছে। সে বিষয়েই আগে বলবো। কাজ শুরু করার আগে আসলে বাস্তবিক কোন কাজ নেই। তবে আপনি কি কাজ করবেন সেটি গুছিয়ে নিতে হবে। কেউ কোন বিষয়ে সফল হলে অথবা কোন বিষয়ে ভালো লেগে গেলেই ইউটিউবে কাজ শুরু করবেন না, বরং প্রথমে নিজেকে প্রশ্ন করে নিন যে আপনি টেকনিক্যাল কি কি জানেন এবং যে বিষয়টি নিয়ে কাজ করবেন সেই সম্পর্কে আপনি কতটুকু জানেন। যে বিষয়ে আপনি ভালোভাবে জানেন সেই বিষয়েই কাজ করবেন, কারো সফলতা দেখে বিষয় নির্বাচন করবেন না। উদাহরণ হিসেবে বলতে পারি যে, কিছু সময় ধরে চাইনিজ ফানি ভিডিও অনুকরণে কাজ করে এদেশে অনেকেই সফল হয়েছেন তাই বলে আপনিও শুরু করবেননা। যারা প্রথমে ট্রেন্ডটা ধরতে পেরেছে তাদের কথা আলাদা। আপনি নতুন করে শুরু করার আগে নিজে ভাবুন যে আপনার মধ্যে রসবোধ আছে কিনা অথবা আপনি মনে মনে নতুন কোন ফানি বিষয় ক্রিয়েট করতে পারছেন কিনা। আপনার আশপাশে যেসব বিষয় আছে সেসব নিয়েই কাজ করার প্ল্যান করুন। যেমন উত্তরাঞ্চলের কারও যদি মাছ ধরার বিষয়টি ভালোও লাগে তবুও করা উচিত নয় কারণ তার রিসোর্স কম। সেক্ষেত্রে দক্ষিণাঞ্চলের যারা আছে তাদের জন্য বিষয়টি অনেক সহজ। আবার উত্তরাঞ্চলে হয়তো কৃষি অনেকটাই সহজ হবে। তার মানে ইউটিউবিং করার জন্য আগ্রহ এবং সহজলভ্যতা উভয়ই বিশেষ গুরুত্বপূর্ণ। দুটোর মিল হলে তখনই কাজ শুরু করুন। যেসব নিয়ে ইউটিউবে ইতোমধ্যে অনেক অনেক কাজ হয়ে গেছে সেগুলো নিয়ে কাজ না করাই ভালো। নতুন একটা আইডিয়া হতে পারে আপনার পুরো জীবনের পাথেয়। তাই নতুন বিষয় নিয়ে ভাবুন। আইডিয়া তৈরী করার সময় খুবই গুরুত্বপূর্ণ একটা বিষয় হচ্ছে যে আপনি এমন কোন আইডিয়া নিয়ে কাজ করবেন না যা কোন নির্দিষ্ট জাতি-ধর্ম-বর্ণের লোকজনই দেখবে, সেটা যে কোন বয়সেরেই হোকনা কেন। চাইল্ড এবং টিনএজদের টার্গেট করে কনটেন্ট বানালে তা দ্রুত ভিউ আসে, কারণ এরাই মুল ভিউয়ারস। এমন আইডিয়া নিন যা পৃথিবীর যে কোন প্রান্তের মানুষেরই দেখলে ভালো লাগবে। যেমন একটি বাজে আইডিয়া হচ্ছে ধর্মীয় বিষয় নিয়ে কাজ করা হোক তা হিন্দু বা মুসলমান। কারণ প্রথমেই আপনার দর্শককে একটা নির্দিষ্ট ধর্মে আটকে দিচ্ছেন। বিষয় নির্বাচন করা হয়ে গেলে এবারে ভাবুন টেকনিক্যাল বিষয়ে। ক্যামেরা, লাইট, এডিট এসবে আপনি কতটুকু পরিপূর্ণ তা চিন্তা করুন। আপনি যদি মুল ক্রিয়েটর হয়ে থাকেন তাহলে কমপক্ষে গ্রাফিক্স এবং এডিট জানতে হবে। তাই গ্রাফিক্স এবং এডিট না জেনে ইউটিউবিং শুরু করবেন না। তাহলে পদে পদে ধাক্কা খেতে হবে। ইউটিউব থেকেই গ্রাফিক্স এবং এডিটের উপর মাস তিনেক সময় দিন। মোটামুটি সাধারণ কাজ চালিয়ে নেয়ার মতো হলে তখন শুরু করতে পারেন।
ইউটিউবিং এর বিষয় এবং টেকনিক্যাল বিষয় নির্ধারিত হয়ে গেলে এবারে ইউটিউব এর দর্শকদের আচার-আচরণের দিকে মনোযোগ দিন। আপনি যে বিষয় নিয়ে ইউটিউবে কাজ করতে চান সেই বিষয়ে ইউটিউবে এরই মধ্যে কি কি চ্যানেল আছে তাদের খুঁজে বের করে তালিকা করুন। প্রতিদিন চ্যানেলগুলো ভিজিট করুন। তারা কিভাবে ভিডিও দিচ্ছে, কিভাবে বানাচ্ছে, কিভাবে থাম্বস টাইটেল দিচ্ছে সেটি খেয়াল করুন। কোন চ্যানেলে ঢুকে প্রথমেই চেক করে নেবেন যে চ্যানেলটি কবে তৈরী হয়েছে এবং তার সর্বোচ্চ ভিউ হওয়া ভিডিওটি কেমন। সর্বোচ্চ ভিউ হয়েছে যে পাঁচটি ভিডিও সেই ভিডিওগুলো সম্ভব হলে ডাউনলোড করে নিন থাম্বনেইল সহ। প্রতিটি চ্যানেলের পাঁচটি করে ভিডিও নিয়ে কেন সেগুলো মানুষ এতো বেশী দেখলো সেটি নিয়ে চিন্তা-ভাবনা করুন। আপনি প্রথম যে পাঁচটি ভিডিও বানাবেন সেই পাঁচটি ভিডিও যাতে সবগুলো ডাউনলোড করা সবচেয়ে বেশী দেখা পাঁচটি ভিডিওর মতো হয় সেদিকে লক্ষ্য রাখুন। তাদের মতো করে থাম্বনেইল বানান, তাদের মতো করে এসইও করুন, টাইটেলও ফলো করুন (কপি নয়)। মনে রাখবেন প্রতিযোগীতায় টিকতে হলে প্রতিযোগী কতদুর গেলো সেটা জানা জরুরী, ইউটিউবিং একটি প্রতিযোগিতা ছাড়া আর কিছু নয়।
এখনো কিন্তু আপনি ভিডিও বানাননি। ধরে নিলাম আপনি ভিডিও বানাতে শুরু করেছেন। না থামুন, এখনি নয়। ভিডিও বানাতে গেলে আপনাকে সবার আগে জানতে হবে কপিরাইট নিয়ে। কপিরাইটের তিনটি ধরণ আছে, তা হলো ক্লেইম, ব্লক ও ষ্ট্রাইক। ক্লেইম হলে কি কি সমস্যা হতে পারে, মনিটাইজেশনের জন্য সেটি কতটুকু গুরুত্বপূর্ণ তা আগে জানুন। ব্লক হলে কি করতে হবে সেটিও জানুন। কি কি কাজ করলে ষ্ট্রাইক পেতে পারেন সেটিও আপনাকে গুরুত্ব সহকারে জানতে হবে। মুলত সব আশা-ভরসা শেষ হয় ষ্ট্রাইকের কারণে তাই ষ্ট্রাইক এড়ানোর জন্য কি করবেন অথবা ষ্ট্রাইক হয়ে গেলে কি করবেন সে নিয়ে কনটেন্ট বানানোর আগেই জেনে নেবেন। যদিও আপনি চুরি-দারি না করলে ষ্ট্রাইকের কোন প্রশ্ন থাকেনা, তারপরো জানতে হবে, কারণ অনেকেই নিজের কনটেন্টেও ষ্ট্রাইক পায়, কারণ তারা ষ্ট্রাইকের পরিধি জানেনা। যেমন কোন সফটওয়্যার হ্যাক নিয়ে নিজে ভিডিও বানালেও ষ্ট্রাইক পেতেই পারেন। বোকারা ঠকে শেখে, আপনি নিশ্চই বোকার তালিকায় নাম লেখাতে চাইবেন না।
ধরে নিয়েছি আপনি কপিরাইট জেনে গেছেন। এবারে ভিডিও বানিয়ে বড়দের ফলো করে আপলোড করা শুরু করেছেন। আপনার ভিউ, সাব আসবেই তা নিশ্চিত থাকুন, যদি আপনি উপরের ষ্টেপগুলো ফলো করে ভিডিও বানিয়ে থাকেন। মনিটাইজেশনের জন্য আবেদন কখন কিভাবে করবেন তাও জেনে নেবেন আপলোড করার সাথে সাথেই। আবার ইউটিউবের জন্য ভিডিও যখন বানালেনেই তখন অন্যান্য মাধ্যম যেমন ফেসবুকের জন্য এই ভিডিওটি কিভাবে তৈরী করবেন তা নিয়ে চিন্তা করুন। কারণ ফেসবুকও এখন মনিটাইজেশন দিচ্ছে। আপলোড হয়ে গেলো কিন্তু দশ-বারোটা’র বেশী ভিউ হচ্ছেনা। কোন সমস্যা নেই। আপনি যদি আসলেই ভিউয়ারসদের মেজাজ-মর্জি অনুযায়ী ভিডিও বানিয়ে থাকেন তাহলে ভিউ-সাবের স্রোত আসা সময়ের ব্যাপার। ভালো কনটেন্টের জন্য কোন প্রকার প্রমোশনের দরকার হয় না। প্রমোশন, বুষ্ট, এন্ডস্ক্রীণ সাপোর্ট এসব আমার কাছে অপ্রয়োজনীয় বিষয় বলে মনে হয়। কনটেন্ট বানানোর ক্ষেত্রে আমরা যে ভুলটি করি তা হলো আমরা মনে করি যে আমার কনটেন্টটি ভালো হয়েছে। কিন্তু আসলে ভালো হয়নি। নিজে খেটে একটা কনটেন্ট বানালে সেটি নিজের কাছে ভালো অবশ্যই লাগে, তবে তা দর্শকের কাছে ভালো হলো কিনা সেটাই মুখ্য। এই জায়গাটায় ভুল করলেই শতশত কনটেন্ট বানালেও বা শত রকমের প্রোমোট করলেও ভিউ সাব আসবেনা। আর এটা বোঝার উপায় হচ্ছে ভালো ভিডিওগুলো পর্যবেক্ষণ করে দর্শকদের রুচির একটা হিসাব বের করে নেয়া। যার হিসাব যতো বেশী সঠিক সে তত দ্রুত সাব-ভিউ পাবে। এই একটি পদ্ধতি ছাড়া আর কোন পদ্ধতি নেই যার দ্বারা আপনি সাব-ভিউ বাড়াতে পারবেন। শুধুমাত্র পর্যবেক্ষণের সঠিক ফলাফলই আপনাকে সফলতা এনে দিতে পারে। পর্যবেক্ষণের পাশাপাশি ইউটিউবের টিপস এন্ড ট্রিকগুলোও শিখে ফেলুন ধীরে ধীরে। মোদ্দকথা ইউটিউবিং শুরুর আগে মাস ছয়েকের একটা প্রস্তুতি নিয়ে শুরু করুন। মনে রাখবেন এটি একটি পুরোদস্তুর পেশা, এখন আর ইউটিউবিং হেলাফেলা ধরণের কোন কাজ নয়। এটা লাইফ সেটেল্ড বা ধংস দুটোই করতে পারে।
ইউটিউবে অসংখ্য ভিডিও বানানোর চাইতে বরং পর্যবেক্ষণ করে কয়েক মাস পর একটা ভিডিও বানানো অনেক ভালো। আমি ব্যক্তিগত অভিজ্ঞতা থেকে বলছি, মানুষ কিছু বিষয় খুব পছন্দ করে যেমন দু:খজনক কোন ঘটনা, পুরোনো স্মৃতি জাগানিয়া কিছু, খুব মেলোডিয়াস সুর, চরম আশ্চর্যজনক কিছু যা কখনো সাধারণভাবে শোনা যায়নি, বড় সাইজে কোন কিছুর তথ্য যেমন বড় বিমান বা জাহাজ, ফেইলড টাইপের ভিডিও, ছোট হতে বড় হয়ে সফল হওয়ার কথা এসব।
দুজন ভালো ইউটিবারের কথা এখানে উল্লেখ না করলেই নয়, এর মধ্যে কোলকাতার Biswajit Mondal যিনি স্বর্ণ শিল্পী। স্বর্ণলংকার বানানো নিয়ে তার ইউনিক চ্যানেল। এবং আমাদের দেশে Monir's Days নামে একটি চ্যানেল আছে যে বিমান নিয়ে চ্যানেল বানিয়েছে। দুজনের চ্যানেলের কনটেন্ট আইডিয়া আমার কাছে খুবই ভালো লেগেছে, যা ইউনিক এবং সারা জীবনের সঞ্চয়। এভাবেই কিছু করুন।
আজকের মত এখানেই শেষ করছি, ভালোলাগলে পোস্ট টা শেয়ার করুন আর কোন প্রশ্ন থাকলে কমেন্ট করে জানান।

Saturday, February 9, 2019

বাংলাদেশে বন্ধ করে দেওয়া হলো ২৪৪টি পর্ন ওয়েবসাইট...!

February 09, 2019 0

বাংলাদেশের টেলিকম খাতের সর্বোচ্চ নিয়ন্ত্রক সংস্থা বাংলাদেশ টেলিকম্যুনিকেশন রেগুলেটরি কমিশন বা বিটিআরসি ২৪৪ টি পর্নোগ্রাফিক ওয়েবসাইট বন্ধের নির্দেশ দিয়েছে। গতকালই বিটিআরসি থেকে ইন্টারন্যাশনাল ইন্টারনেট গেটওয়ে বা আইআইজি কে পর্ন সাইট বন্ধের ব্যাপারে নির্দেশ পাঠানো হয়। ইতিমধ্যে সাইটগুলো বন্ধের কার্যক্রম শুরু হয়ে গিয়েছে। এর আগে গতকালই ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রনালয়ের মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার তার ফেসবুক পেজে একটি স্ট্যাটাসে জানান, “২৪৪ টি পর্ন সাইট বন্ধ করা হয়েছে। এই কার্যক্রম চলছে এবং চলবে।”
মাননীয় মন্ত্রী এর আগেও একবার বলেছিলেন যে ইউটিউবই বাংলাদেশে পর্ন ভিডিও এর সবচেয়ে বড় উৎস। পাশাপাশি তিনি এটাও বলেন যে তারা ইউটিউব কর্তৃপক্ষ এর সাথে যোগাযোগ করেছেন এবং তারা এসব কন্টেন্ট সরিয়ে ফেলার ব্যাপারে সম্মত হয়েছে।
গত বছরের নভেম্বরে, উচ্চ আদালত থেকে সরকারকে পরবর্তী ছয় মাসের জন্য সকল পর্নোগ্রাফিক সাইট বন্ধ করার জন্য একটি রুল জারি করা হয়।
ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রণালয় এবং আইন মন্ত্রণালয়ের সচিবদের, বিটিআরসি চেয়ারম্যান ও দেশের ৫টি টেলিকম অপারেটর কর্তৃপক্ষকে পরবর্তী এক মাসের মাঝে রুলের জবাব পাঠাতে বলা হয় হাইকোর্ট থেকে।
বাংলাদেশে বর্তমানে প্রায় ছয় কোটিরও বেশি মানুষ ইন্টারনেট ব্যবহার করে। এদের মাঝে একটি বিরাট অংশ শুধু মোবাইল ডিভাইস ও মোবাইল নেটওয়ার্ক এর মাধ্যমে ইন্টারনেটে প্রবেশ করে। যদিও বাংলাদেশে ঠিক কি পরিমান মানুষ পর্নোগ্রাফিক সাইট ভিজিট করে সেটার কোন তথ্য নেই, তবে মানুষের জন্য ফাউন্ডেশন নামক এক প্রতিষ্ঠানের সার্ভে থেকে জানা যায় যে ঢাকায় বসবাসকারী স্কুলগামী শিশুদের ৭৭ ভাগই নিয়মিত পর্ন দেখে। এ থেকেই বুঝা যায় বাংলাদেশে পর্নোগ্রাফির প্রতি আসক্তি কতটা ভয়াবহভাবে ছড়িয়ে পড়ছে।
এর আগে ভারত, চীন সহ বেশ কিছু দেশে পর্ন সাইটের ব্যাপারে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা হয়। শেয়ার করে খবরটি জানিয়ে দিতে পারেন আপনার ফেসবুক বন্ধুদের।

Friday, February 8, 2019

মোবাইল দিয়ে High Quality এবং Noise Free Voice Record করুন কোন Microphone ছাড়া

February 08, 2019 0

আমরা যারা YouTube এ কাজ করি তাদের অনেকের একটা সমস্যা থাকে তাহলো আমরা ভিডিওতে ভালো ভয়েজ দিতে পারিনা। শুধুমাত্র ভিডিও ভালে হলেই হলোনা সাথে সাথে ভিডিও এর ভয়েজ হওয়া লাগে ক্লিয়ার নয়েজ ফ্রি। তবে আমরা এখন বেশির ভাগই মোবাইল দিয়ে YouTubing করে থাকি তাই ভালো নয়েজ ফ্রি ভয়েজ দিতে পারিনা। নয়েজ ফ্রি ভয়েজ রেকর্ড করার জন্য প্রয়োজন হয় ভালো মাইক্রোফোন তবে আজকে আমি আপনাদেরকে বলব কিভাবে কোন মাইক্রোফোন ছাড়া মোবাইল দিয়ে হাই কোয়ালিটি এবং নয়েজ ফ্রি রেকর্ড করবেন। তাহলে চলুন শুরু করা যাক।
মোবাইল দিয়ে হাই কোয়ালিটি Voice Record করার জন্য আমি আপনাদেরকে একটা Software দিব, এটা দিয়ে আপনারা High Quality এবং Noise Free Voice Record করতে পারবেন। তাহলে নিচের লিংক থেকে Software টা ডাউনলোড করে নিন, Software টার নাম হলো Recforge 2
Download

ডাউনলোড করার পর ইনষ্টল করে Software টা ওপেন করুন তারপর আপনারা ইসবগুল পারমিশন দিয়ে দিন, এরপর নিচের ছবির মত দেখতে পাবেন।

আপনারা লাল রেকর্ডিং বাটন টাতে ক্লিক করে রেকর্ড করতে পারবেন, সাউন্ড করার সময় নিচের ছবির মত একটা Sensitivity বাড়ানো কমানোর অপশন পাবেন।

Sensitivity Level যত কমানো থাকবে Recording তত নয়েজ ফ্রি হবে। এখন আপনার ইচ্ছা মত এটা বাড়িয়ে কমিয়ে এডযাস্ট করে রেকর্ড করতে থাকুন।
আশা করি পোস্ট টা আপনার একটু হলেও কাজে লেগেছে, কোনকিছু বুঝতে সমস্যা হলে কমেন্ট করুন আর ভালো লাগলে পোস্ট টা শেয়ার করুন।

দেখে নিন কিভাবে কোন রিডাইরেক্ট হওয়া ছাড়া Sora Templates এর Footer Credit Remove করবেন।

February 08, 2019 4

Sora Templates Blogger ব্লগের জন্য অন্যতম সেরা Blogger Template.. এদের ডিজাইন গুলো দারুন। তাছাড়া তাদের Template গুলো Seo Friendly, Adsense Friendly, User Friendly এবং Unique Design হয়ে থাকে। Sora Template আপনি ফ্রিতে ডাউনলোড করতে পারবেন। তবে ফ্রি ভার্সনে সব সুবিধা ফ্রি পেলেও একটা সমস্যা থাকে তাহলো সাইটের Footer এ তাদের ওয়েবসাইট ও ব্লগের Credit দেওয়া থাকে।
আপনি হয়তো Code Edit করে তাদের Footer Credit Remove করতে পারবেন কিন্তু আপনার এতে কোন লাভ হবেনা কারন আপনি তাদের ক্রেডিট রিমুভ করলে আপনি অথবা ভিজিটররা যখন আপনার সাইটে ভিজিট করবে তখন অটোমেটিক রিডাইরেক্ট হয়ে Sora Templates এর ওয়েবসাইটে চলে যাবে। তবে চিন্তা করবেন না আজকে আমি শেখাবো কিভাবে কোন রকম রিডাইরেক্ট হওয়া ছাড়াই Sora Templates এর Footer Credit Remove করবেন। তাহলে চলুন শুরু করা যাক।

Step: 1

প্রথমে আপনার সাইটের Blogger Dashboard এ চলে যান। তারপর Settings >> Themes >> Edit Html >> তারপর Html Code এর যেকোন জায়গায় ক্লিক করুন >> আপনার কম্পিউটারে প্রেস করুন CTRL+F >> একটা Search অপশন ওপেন হবে, সেখানে নিচের লেখাটা লিখে সার্চ করুন
বিঃদ্রঃ মোবাইল হলে লেখাটা খুঁজে বের করতে হবে। এটা সাধারণত কোডের একদম নিচের দিকে থাকে।

সার্চ করার পর নিচের মত কিছু Code দেখতে পাবেন।

কিছু কিছু Template এ উপরের কোডটা খুঁজে নাও পেতে পারেন, যদি কোডটা খুঁজে বা পান তবে নিচের কোডটা লিখে আবার সার্চ করুন।

Step: 2


Step: 3

তারপর

এই লেখাটা খুঁজে বের করুন, এই লেখাটা সাধারণত কোডের একদম উপরের দিকে থাকে। খুঁজে বের করে

এ লেখাটার আগে নিচের কোডটা বসিয়ে দিন।

কোডটা বসানোর পর আবার সার্চ করুন আগের মত id='mycontent'> এটা লিখে। সার্চ করার পর সেখানে 'mycontent' এর যায়গায় 'mychange' এটা বসিয়ে দিয়ে Save Theme এ ক্লিল করুন।
ব্যাস আমাদের কাজ শেষ। এবার আপনি ইচ্ছা করলে Footer Credit Remove করে দিতে পারেন।
ভালো লাগলে পোস্ট টা শেয়ার করতে পারেন আর যদি কোনকিছু বুঝতে সমস্যা হয় তবে কমেন্ট করে জানান।

Wednesday, February 6, 2019

ডাউনলোড করে নিন Responsive Sora Ribbon Blogger Template

February 06, 2019 0

বন্ধুরা আজকে আমি অসাধারণ একটা Blogger Template শেয়ার করবো। একটি ওয়েবসাইটের অন্যতম একটি বৈশিষ্ট হলো ওয়েবসাইটের ইউনিক ও সুন্দর এবং Responsive ডিজাইন। আপনি একটা সাইট বানালেন, সাইটে ভালো ভালো কন্টেন্ট রাখলেন কিন্তু আপনার সাইটের ডিজাইন যদি সুন্দর ও ইউজার ফ্রেন্ডলি না হয় তবে ভিজিটররা আপনার সাইট পছন্দ করবেনা। তাছাড়া সাইটের লোডিং টাইমও কম হতে হবে। আজ আমি যে Theme/Template টা শেয়ার করবো এটাতে আপনারা সবগুলো বৈশিষ্ট পাবেন। Template টার নাম হলো Sora Ribbon… তাহলে নিচে থেকে লাইভ ডেমো টা দেখে আসুন।

কেমন লেগেছে? নিশ্চয় ভালো লেগেছে, আমার কাছে Template টা অনেক ভালো লেগেছে। আর এটার বিশেষ শুবিধাটা হলো আপনি ইচ্ছা করলে এটা সাইটে আপলোড করার পর কাস্টমাইজ করতে পারবেন তবে ফুটার ক্রেডিট রিমুভ করা যাবেনা কারন এটা ফ্রি ভার্সন।

Sora Ribbon Features:

  • Responsive

  • Google Testing Tool Validator

  • Mobile Friendly

  • Custom 404 Page

  • Fast Loading

  • Minimal

  • Simple

  • Whatsapp Sharing

  • Seo Friendly

  • Ads Ready

  • Clean Layout

  • Clear Design

  • Drop Down Menu

  • Social Sharing

  • HTML5 & CSS3

  • Browser Compatibility

  • তাহলে আর দেরি না করে নিচের লিংক থেকে Template টা ডাউনলোড করে নিন।

    আজকের মত এখানেই শেষ করছি, Template টা কেমন লাগলো কমেন্ট করে জানাতে ভুলবেন না।

    Tuesday, February 5, 2019

    সময় থাকতে সতর্ক হোন এবং কম বয়সে চুল পাকা থেকে বাঁচুন

    February 05, 2019 0

    আজকাল খুব কম বয়সেই অনেকের চুল পাকতে শুরু করেছে। বয়স বাড়ার সাথে সাথে আমাদের চুলের গোড়ায় একটা বিশেষ রন্জ্ঞক পদার্থ কমতে থাকে ফলে চুল পাকতে শুরু করে। এটাই স্বাভাবিক কিন্তু এটা যদি কম বয়সেই অর্থাৎ যুবক বয়সেই হয় তাহলে দেখতে যেমন খারাপ লাগে তেমনি আত্মবিশ্বাস নষ্ট হয়ে যায়। সবার সাথে মিশতে অথবা আত্মীয়স্বজনদের সামনে যেতে সংকোচ বোধ হয়। আর বর্তমানে কম বয়সে চুল পাকাটা অনেক বেড়ে গেছে।

    কম বয়সে চুল পাকার কারণঃ

    ১। ধূমপানঃ ধূমপান শুধু যে চুলের ক্ষতি করে তা নয় ধূমপান আমাদের শরীরের জন্য মারাত্মক ক্ষতিকর তাই ধূমপান ও মাদকদ্রব্য থেকে বিরত থাকুন।
    ২। মানসিক চাপঃ অতিরিক্ত দুশ্চিন্তা করা বন্ধ করুন, সবসময় হাসিখুশি থাকার চেষ্টা করুন, বন্ধুদের সাথে সময় কাটান একা থাকলে আজেবাজে চিন্তা এসে মাথায় ভর করে তাই একা একা বসে থাকবেন না।
    ৩। ত্রুটিযুক্ত খাদ্য
    ৪। পুষ্টির অভাব
    ৫। ইলেক্ট্রিক ড্রায়ার এবং চুলে অতিরিক্ত ক্যামিকেল ব্যবহার
    ৬। ঘুম কম হওয়াঃ একজন পূর্ণবয়স্ক মানুষের সারাদিনের ক্লান্তি দূর করার জন্য অন্তত ৭-৮ ঘন্টা ঘুমাতে হবে এরথেকে কম যদি ঘুম হয় তাহলে শরীরিক ও মানসিক বিভিন্ন সমস্যা দেখা দিবে। তাই রাতের বেলা নির্দিষ্ট সময়ে খাওয়াদাওয়া করে পর্যাপ্ত পরিমাণ ঘুমাতে হবে, রাতের বেলা অতিরিক্ত মোবাইল ফোন ব্যবহার বন্ধ করুন।
    ৭। জেনেটিক বা হরমোনের সমস্যা
    ৮। অতিরিক্ত হস্তমৈথুনঃ হস্তমৈথুন এমনিতেই শরীরের জন্য ক্ষতিকর আর তা যদি অতিরিক্ত মাত্রায় হয় তাহলে তো আর বলার অপেক্ষা রাখে না। তাই হস্তমৈথুনে যদি অভ্যস্ত হয়ে পরেন তাহলে ডাক্তারের সাথে যোগাযোগ করে সময় থাকতে উপযুক্ত ব্যবস্থা গ্রহণ করুন তানাহলে বিবাহ পরবর্তী জীবনেও সমস্যা হতে পারে। তাছাড়া হস্তমৈথুন ইসলামিক ভাবেও হারাম।
    ৯। Clear Anti Dandruff Hair Oil For Man:

    এই তেলটা ব্যবহার করা থেকে বিরত থাকুন। এই তেল ব্যবহার করলে চুল পাকা সহ বিভিন্ন সমস্যা দেখা দেয় যা আমার নিজের দেখা।
    আমি, আমার এক ছোট ভাই ও এলাকার এক বড় ভাই আমরা তিনজন এই তেলটা ব্যবহার করেছি। এই তেল ব্যবহার করার কিছুদিন পর থেকেই আমাদের চুল পাকতে শুরু করে। আমার এবং এলার ঐ বড় ভাইয়ের এখন মাথার প্রায় ৩০% চুল পেকে গেছে এবং এর পরিমাণ দিন দিন বাড়ছে। আমার বর্তমান বয়স ১৯ ও বড় ভাইয়ের ২০ বছর। আর ঐ ছোট ভাইয়ের এখন ৭-১০ টা চুল পাকা আছে, আস্তে আস্তে বাড়ছে।
    তাছাড়া আমার দূরসম্পর্কের এক দুলাভাই এই তেল ব্যবহার করার পর থেকে তার চুল পরতে শুরু করেছে।
    তাই আমার মতে এই তেলটা চুলের জন্য খুবই ক্ষতিকর। এটা ব্যবহার করা থেকে বিরত থাকুন।
    বিঃদ্রঃ- সবসময় ভালো ডাক্তারের পরামর্শ নিন।
    আজকের মত এখানেই শেষ করছি, এবিষয়ে কমেন্ট করে আপনার মতামত জানাতে পারেন, ভালো লাগলে পোস্ট টা শেয়ার করুন।

    Monday, February 4, 2019

    Turbo Vpn Pro Version ডাউনলোড করে নিন একদম ফ্রি..!

    February 04, 2019 0

    Turbo Vpn বর্তমান সময়ের অন্যতম জনপ্রিয় একটি Vpn.. এই Vpn টির Play Store এ মোট ডাউনলোড ৫০ মিলিয়ন এর চেয়েও বেশি।

    সুতরাং বুঝতেই পারছেন এটা খুবই জনপ্রিয়। তাই আজকে আমি এই Turbo Vpn এর Pro Version নিয়ে এসেছি। Play Store থেকে যেটা ডাউনলোড করবেন ঐটাতে সব ফিচার আপনি পাবেন না। যেমনঃ অল্প কিছু সার্ভার পাবেন, Vip Server পাবেন না, স্পিড কম পাবেন, এড থাকবে ইত্যাদি। আমি আজকে যেটা আপনাদের সাথে শেয়ার করছি এটাতে সবগুলো Vip এবং Free সার্ভার পাবেন তাছাড়া স্পিডও অনেক ভালো পাবেন। তো আর দেরি না করে নিচের লিংক থেকে Turbo Vpn Pro Version টা ডাউনলোড করে নিন।
    Download Turbo Vpn Pro Apk

    এটাতে আপনারা প্রতিটা দেশের একাধিক Vip Server পাবেন এবং Free Server গুলাও ব্যবহার করতে পারবেন। নিচে আমি সার্ভারগুলোর ছবি দিলাম।


    ভালো লাগলে পোস্ট টি শেয়ার করবেন আর এরকম আরো পোস্ট পেতে আমাদের সাথে থাকুন।

    Friday, February 1, 2019

    দেখে নিন Blogger Post এ কিভাবে YouTube Video Embed করবেন..!

    February 01, 2019 0

    আপনি কি আপনার ব্লগের পোস্টে YouTube Video দিতে চান যাতে ভিজিটররা আপনার সাইটে থেকেই সেই ভিডিওটা দেখতে পারে YouTube এ না যাওয়া লাগে? মানে ব্লগের পোস্টে YouTube Embed করে দিতে চান? তাহলে চলুন দেখে আসি কিভাবে ব্লগারে পোস্টের ভিতরে YouTube Video Embed করে দিবেন।
    এটা ব্লগারে দুই ভাবে করা যায়। একটা হলো ব্লগার ওয়ার্ড কম্পোজার দিয়ে আরেকটা Html Code দিয়ে। আজকে আমরা দুটাই শিখবো।

    Blogger Compose দিয়ে কিভাবে করবেনঃ

    এটা দিয়ে করার জন্য পোস্ট লেখার সময় Compose দিয়ে লিখতে হবে Html এ নয়। পোস্ট লেখার সময় নিচের ছবির মতো দেখানো Video Icon এ ক্লিক করে YouTube Video Embed করতে পারবেন। তবে এটার একটা সমস্যা আছে আর তা হলো এই পদ্ধতিটা সব সময় কাজ করে না। তাই Html Code দিয়ে করা ভালো।

    HTML কোড দিয়ে কিভাবে করবেনঃ

    Html দিয়ে করা খুবই সহজ, প্রথমে আপনি YouTube এ চলে যান, মোবাইল হলে Computer Mode করে নিন, যে ভিডিওটা Embed করতে চান সেটাতে যান তারপর Share এ ক্লিক করুন >> এবার Embed এ ক্লিক করুন ক্লিক করার পর উপরের ছবির মত একটা কোড পাবেন। কোডটা কপি করে পোস্টের যেখানে ভিডিও দেখাতে চান সেখানে পেস্ট করে দিন। ব্যাস এবার পোস্ট পাবলিশ করে দেখুন আপনার পোস্টে ভিডিও Embed হয়ে গেছে।
    আশা করি পোস্ট টা আপনার একটু হলেও কাজে লেগেছে, ভালো লাগলে শেয়ার করতে পারেন আর এরকম আরো শিক্ষণীয় পোস্ট পেতে আমাদের সাথে থাকুন।

    Wednesday, January 30, 2019

    Android মোবাইলে Internal Sound সহ Screenrecord এবং Gameplay Screenrecord করুন খুব সহজে

    January 30, 2019 0

    আমরা যারা Gameplay Video নিয়ে YouTube এ কাজ করতে চাই তাদের জন্য এটা একটা বড় সমস্যা আর তা হলো Android মোবাইলে এখন Internal Sound Recording বন্ধ। এটা গুগল দ্বারা অফিসিয়ালি বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে বিভিন্ন কপিরাইট জনিত কারনে।
    গেমস খেলে টাকা আয় করুন এবং অনলাইনে ক্যারিয়ার গড়ুন

    তার কারনে এখন আমরা আর ইন্টারনাল সাউন্ড সহ স্ক্রিনরেকর্ড করতে পারিনা। তাই আজকে আমি আপনাদেরকে বলব কিভাবে Android মোবাইলে Internal Sound সহ Screenrecord করবেন। এটা করার জন্য আজকে আমি ৩টা উপায় বলব, এরমধ্যে ২টা সব মোবাইলে কাজ করবে আর ১টা শুধু Samsung মোবাইল এর জন্য। তাহলে চলুন শুরু করা যাক।

    পদ্ধতি-১ঃ

    এই পদ্ধতিতে করার জন্য আপনাকে একটা Headphone কিনতে হবে। এই Headphone টা বানানো হয়েছে শুধু Internal Sound সহ Gameplay ভিডিও করার জন্য, এটা দিয়ে আপনি যখন স্ক্রিনরেকর্ড করবেন তখন Internal Sound ও রেকর্ড হবে এবং আপনিও Sound শুনতে পারবেন Game খেলার সময়। এই Headphone টা আপনি Amazon থেকে কিনতে পারবেন। এটার বাংলাদেশি টাকায় দাম পরবে ৪ হাজার টাকার মত। নিচে আমি Amazon এর লিংকটা দিয়ে দিলাম।
    Mobizen Headphone Amazon Link

    আমার মতে এটা খুবই খরচসাপেক্ষ হয়ে যায় কিন্তু আপনি এটা দিয়ে কোন ঝামেলা ছাড়া Internal Sound সহ Screenrecord করতে পারবেন।

    পদ্ধতি-২ঃ


    এই পদ্ধতিটা শুধুমাত্র Samsung মোবাইলে কাজ করবে। Mobizen এর একটা Screenrecorder আছে যা শুধু Samsung মোবাইল এর জন্য তৈরি করা হয়েছে, এটা দিয়ে Internal Sound সহ Screenrecord করতে পারবেন।
    Mobizen For Samsung Download

    পদ্ধতি-৩ঃ

    এটা সব মোবাইলে কাজ করবে এবং যারা Amazon থেকে Headphone কিনতে পারবেন না তারা এই উপায়টা ব্যবহার করতে পারেন আর এটাতে কোন খরচ হবেনা তাই আমার মনেহয় এটা সবাই ব্যবহার করতে পারেন আর আমিও এই পদ্ধতিতে Internal Sound সহ Gameplay Screenrecord করি। এটা করার জন্য আপনার শুধু একটা বাটন সহ Headphone লাগবে। এরকম Headphone সবার কাছেই থাকে।
    প্রথমে Headphone টা আপনার মোবাইলে কানেক্ট করুন তারপর নিচের ছবিটার মত কিছু একটা দিয়ে Headphone এর বাটন টা ক্লিক করে রাখতে হবে, ক্লিক করে না রাখলে হবে না, এরকম ক্লিপ আপনারা ম্যাকানিক দোকানে ৫-১০ টাকায় কিনতে পারবেন। তারপর Game খেলার সময় যেকোন Screenrecorder দিয়ে রেকর্ড করলেই দেখবেন আপনি সাউন্ড শুনতেও পাচ্ছেন এবং ইন্টারনাল সাউন্ডও রেকর্ড হবে। আমার মতে এটাই সবচেয়ে সহজ এবং খরচহীন পদ্ধতি।
    আশা করি বুঝতে পেরেছেন, তবুও যদি কিছু বুঝতে সমস্যা হয় তবে কমেন্ট করুন ভালো লাগলে পোস্ট টা শেয়ার করুন।

    Tuesday, January 29, 2019

    পোস্টের ভিতরে কিভাবে এমন লিংক দিবেন যা New Tab এ ওপেন হবে?

    January 29, 2019 0

    হ্যালো বন্ধুরা, আজকে আমি আপনাদেরকে দেখাবো কিভাবে আপনি পোস্টের ভিতরে এমন লিংক দিবেন যাতে ক্লিক করলে সেই লিংকটা নতুন একটা ট্যাবে ওপেন হবে এবং আগের ট্যাবটি আপনার সাইটেই থাকবে। আমরা যখন কোন পোস্ট করি তখন ভিজিটরদের বিভিন্ন কিছু বুঝাতে বিভিন্ন লিংক পোস্টে দেওয়া লাগে অথবা যখন কোন ডাউনলোড লিংক দেই তখন ও এই নতুন ট্যাবের লিংকটা দিলে ভালো হয়,কারন ভিজিটর যখন নতুন ট্যাবে লিংকটা ওপেন করবে তখন সে আপনার সাইটেও রয়ে গেলো। কিন্তু যদি একই ট্যাবে লিংকটা ওপেন করে তবে সে আপনার সাইট ছেড়ে সেই লিংকে চলে গেলো।
    আমি নিচে দুইটা লিংক দিলাম একটা হলো Current Tab এবং আরেকটা New Tab এ ওপেন হবে,আপনি ইচ্ছা করলে ক্লিক করে পরীক্ষা করে নিতে পারেন। তবে এইটা সব ব্রাউজারে সাপোর্ট করে না। যেমনঃ Opera Mini, Uc Mini এরকম ব্রাউজার গুলো সাপোর্ট নাও করতে পারে।
    দেখলেন তো? একটা লিংক একই ট্যাবে ওপেন হলো এবং অন্যটা হলো নতুন ট্যাবে, তাহলে চলুন দেখে নিই কিভাবে এটা করবেন। আমরা সাধারণত লিক দেওয়ার সময় নিচের মত দিয়ে থাকি।

    এভাবে দিলে একই ট্যাবে লিংক ওপেন হবে, নতুন ট্যাবে লিংক ওপেন করার জন্য নিচের মত লিংক দিতে হবে।

    এখানে আমরা শুধু এটা সংযোগ করবো তাহলেই নতুন ট্যাবে লিংক ওপেন হবে।
    আশা করি বুঝতে পেরেছেন, তবুও যদি কোনকিছু বুঝতে সমস্যা হয় তাহলে কমেন্ট করুন এবং এরকম আরো পোস্ট পেতে আমাদের সাথে থাকুন।