BengaliTut.Com - Learn The World In Bengali

Friday, August 16, 2019

Grave of the Fireflies (Hotaru no Haka) Movie Hindi Dubbed

August 16, 2019 0

..:: Info ::..

Director: Isao Takahata
Aired: Apr 16, 1988
Studios: Studio Ghibli
Genres: Drama, Historical
Duration: 1 hr 28 min
Rating: PG-13 – Teens 13 or older

Plot: A young boy and his little sister struggle to survive in Japan during World War II.

..:: Download Links ::..

[1080P-1.7GB] - Yandex Disk - Mediafire - Megacloud - Google Drive

[720P-758MB] - Yandex DiskMediafireMegacloudOneDriveGoogle Drive

[480P-429MB] – Yandex DiskMediafireMegacloudOneDriveGoogle Drive


[Triple Audio (Eng-Jap-Hindi)-1080p] : 1.9 GB

Yandex Disk

Mediafire

OneDrive

Megacloud


..:: Screenshots ::..



Thanks For Visiting...

Credits: AnimeTmDubbers

Saturday, August 10, 2019

কিভাবে অ্যাডসেন্স পিন হাতে পাবেন এবং ভেরিফাই করবেন

August 10, 2019 0

আমরা যারা ইউটিউব বা ওয়েবসাইটে কাজ করি তারা জানি গুগল অ্যাডসেন্স সম্পর্কে। ইউটিউব বা ওয়েবসাইটে কাজ করে ইনকাম করতে হলে গুগল অ্যাডসেন্স অনেক জরুরি। কারন এই গুগল অ্যাডসেন্স ছাড়া টাকা হাতে পাওয়া সম্বব নয়। তাই আমরা অনেকে গুগল অ্যাডসেন্সের সাথে পরিচিত।
আমরা হয়তো অনেকে জানি যে গুগল অ্যাডসেন্সে যখন ১০ ডলার হয় তখন গুগল অ্যাডসেন্স আমাদের ঠিকানায় একটি পিন লেটার পাঠায়।
সেই পিন লেটার থেকে পিন দিয়ে গুগল অ্যাডসেন্সের পিন ভেরিফাই করতে হয়।

কিভাবে গুগল অ্যাডসেন্সের পিন লেটার হাতে পাবেনঃ

গুগল অ্যাডসেন্সের পিন পাওয়ার জন্য সটিক ভাবে আমরা আমাদের Nid Card পিছনের অংশে যে ঠিকানা থাকে সেটা দিয়ে পূরন করতে হবে।
অনেকে ১ম ২য় ৩য় বারেও গুগল অ্যাডসেন্সের লেটার পায় না ঠিকানা ভুলের কারনে।
সঠিক ভাবে ঠিকানা দেওয়ার পর প্রতি সপ্তাহে এক বার খোঁজ নিতে হবে লেটার কি পোস্ট অফিসে এসেছে কি না।

কিভাবে গুগল অ্যাডসেন্স পিন ভেরিফাই করবেনঃ

অ্যাডসেন্সের পিন ভেরিফাই না করলে আমাদের পেমেন্ট নেওয়া সম্বব নয় তাই গুগল অ্যাডসেন্সের পিন ভেরিফাই জরুরি।
প্রথমে আপনার Adsense একাউন্টে লগিন করুন। এরপর নিচের ছবির দেখানো জায়গায় ক্লিক করুন।

এবার Account >> Personal information এ ক্লিক করুন।

এবার Verify Address এ ক্লিক করুন

তারপর এখানে আপনার পিন কোডটি দিয়ে Submit Pin এ ক্লিক করুন।


আশা করি বুঝতে পেরেছেন, তবুও যদি কোনকিছু বুঝতে সমস্যা হয় তাহলে কমেন্ট করুন অথবা আমাদের Facebook Page এ মেসেজ করুন।

Sunday, July 28, 2019

আপনার ওয়েবসাইট এর জন্য নিয়ে নিন Time & Date কোড

July 28, 2019 0
বন্ধুরা আজকে আমি একটা টাইম ও ডেট কোড নিয়ে এসেছি। এটা আপনি যেকোন ওয়েবসাইটে ব্যবহার করতে পারবেন। যেমনঃ Wordpress, Blogger, Php, Wapkiz... বন্ধুরা আপনারা নিচের বক্স থেকে কোডটা কপি করে নিয়ে আপনার সাইটের যেখানে টাইম ও ডেট দেখাতে চান সেখানে কোডটি বসিয়ে দিন। নিচে ডেমো দেখে নিনঃ

Code:

<div style="text-align:center;padding:1em 0;"> <h3><a style="text-decoration:none;" href="https://www.zeitverschiebung.net/en/country/bd"><iframe src="https://www.zeitverschiebung.net/clock-widget-iframe-v2?language=en&size=small&timezone=Asia%2FDhaka" width="100%" height="90" frameborder="0" seamless> </iframe></a></h3></div>

বন্ধুরা পোস্ট কেমন লাগলো কমেন্ট করে জানাবেন। কোন সমস্যা হলেও কমেন্ট করে জানান

Saturday, July 27, 2019

Play Store এ অফিসিয়ালি চলে এলো Pubg Mobile Lite

July 27, 2019 0

বর্তমান সময়ে অন্যতম জনপ্রিয় একটা Games হলো Pubg. যেখানে যাই সব জায়গায় খালি শুনি চল পাবজি খেলি। YouTube, Facebook সবজায়গাতে পাবজি পাবজি আর পাবজি 😁। যাদের কম্পিউটার আছে তারা তো খেলতে পারে আবার যাদের কম্পিউটার নেই তারা ভালো মোবাইলে খেলে। কিন্তু Pubg ভালোভাবে Lag Free ভাবে খেলার জন্য অন্তত 2gb Ram এর মোবাইল লাগে আবার অনেকের ২জিবি Ram তেও চলে না ল্যাগ করে এর কারন হলো মোবাইল এর Graphic Card, Processor ভালো না।
বন্ধুরা এখন আর চিন্তা নেই যাদের মোবাইল এর Ram কম তাই Pubg খেলতে পারেন না তাদের জন্য আর কোন সমস্যা নেই। কারন গত ২৪ জুলাই ২০১৯ এ Pubg Mobile Lite Play Store এ গ্লোবালি রিলিজ হয়েছে। আগে আমরা Vpn কানেক্ট খেলতে পারতাম কিন্তু অনেক সমস্যা ছিলো। এখন আর কোন সমস্যা নেই এখন আপনি Play Store থেকে ডাউনলোড করে কোন Vpn ছাড়াই খেলতে পারবেন।
তো বন্ধুরা আশা করি আপনারা যারা কম Ram এর মোবাইল চালান তারা এটা কোন ল্যাগ ছাড়াই খেলতে পারবেন। আপনি Pubg Lite, Play Store থেকে ডাউনলোড করতে পারবেন, তবুও আমি নিচে ডাউনলোড লিংক দিয়ে দিলাম।
  • Download (Play Store)

  • Download (Apkpure.Com)

  • বন্ধুরা আজকের মত এখানেই শেষ করছি। পোস্ট টা ভালো লাগলে ফেসবুকে শেয়ার করুন।

    Friday, July 19, 2019

    Blogger ব্লগে প্রতিটি পোস্টের নিচে যুক্ত করুন Like এবং Dislike বাটন

    July 19, 2019 0

    লাইক এবং ডিজলাইক খুব মজার একটি জিনিস আমারা যারা ফেসবুক ব্যবহার করি তারা সবাই যানি ফেসবুকে Like করা যায় কিন্তু Dislike করা যায় না তবে আজকে যে Widget মানে বাটন আপনাদের সঙ্গে শেয়ার করবো সেটা YouTube এর লাইক ডিজলাইক এর মত। এই লাইক বাটন গুলোর সব থেকে মজার বিষয় হল আপনি ইচ্ছে মত স্টাইল ব্যবহার করতে পারবেন।
    অনেকের মনে প্রশ্ন কেন এই লাইক ডিজলাইক বাটন ব্যবহার করবো?
    আসলে এটা ব্যবহার করা না করা সম্পূর্ণ আপনার ব্যাপার এতে আপনার ব্লগের ভিজিটর বাড়বে বা অন্য কোন উপকার হবে তেমন কিছু না এটা ব্যবহার করে আপনি বুঝতে পারবেন আপনার পোস্ট কত জন পছন্দ করেছে আর কতজন পছন্দ করেনি মূলত আমার মতে এটাই এর মূল কাজ।

    কিভাবে Like & Dislike বাটন ব্লগার ব্লগে যুক্ত করবেনঃ

    প্রথমে আপনি আপনার ব্লগে লগইন করুন ড্যাশবোর্ড থেকে Template >> Edit HTML এ ক্লিক করুন এবং আপনার কীবোর্ড এর CTRL+F প্রেস করে নিচের ট্যাগ টি সার্চ করুন।
    <data:post.body/>

    ট্যাগ টা খুঁজে পেলে তার নিচে নিচের কোড গুলো কপি করে নিয়ে বসিয়ে দিন।
    <br/>
    <span class="likebtn-wrapper" data-identifier="likeButton1"></span>
    <script>(function(d,e,s){if(d.getElementById("likebtn_wjs"))return;a=d.createElement(e);m=d.getElementsByTagName(e)[0];a.async=1;a.id="likebtn_wjs";a.src=s;m.parentNode.insertBefore(a, m)})(document,"script","//w.likebtn.com/js/w/widget.js");</script>
    <br/><br/>
    উপরের কোড গুল বসানোর পর আপনি একি ভাবে উপরের ট্যাগটি আবার সার্চ করুন দেখুন দ্বিতীয় বার পাবেন মানে এই ট্যাগটি
    <data:post.body/>
    এবার একি ভাবে এই ট্যাগ এর নীচে উপরের কোড গুলো বসিয়ে দিন এবং Save করুন।
    এবার আপনি সাইটের যেকোন একটি পোস্ট ওপেন করে দেখুন Like এবং Dislike বাটন এড হয়ে গিয়েছে।
    পোস্ট টি কেমন লাগলো কমেন্ট করে জানাতে ভুলবেন না।

    Wednesday, July 17, 2019

    সুন্দর একটা Navigation Bar ডিজাইন করুন HTML এবং Css দিয়ে

    July 17, 2019 0

    বন্ধুরা আজকে আমি দেখাবো কিভাবে শুধুমাত্র HTML এবং Css ব্যবহার করে সুন্দর একটা Navigation Bar ডিজাইন করবেন। এই Navigation Bar টা আপনি ইচ্ছা করলে আপনার ওয়েবসাইটে ব্যবহার করতে পারবেন। তছাড়া যদি HTML,Css সম্পর্কে জানা থাকে তাহলে আপনি নিজেই এটাকে আরো কাস্টমাইজ করে নিতে পারবেন। তাহলে চলুন শুরু করা যাক। তবে এর আগে ডমো দেখে নিন।

    আশা করি ভালো লেগেছে। এখন আপনি শুধু নিচে থেকে কোড গুলো কপি করে আপনার সাইটে প্রয়োজন মত জায়গায় বসান আর কোডের ভিতরে লিংক গুলো বসিয়ে নিবেন তাহলেই হবে। লিংক এর a=# এরকম দেওয়া আছে।
    Code
    <!DOCTYPE html>
    <!--Code By bengalitut ( https://blurboss.blogspot.com )-->
    <html lang="en" >

    <head>
    <meta charset="UTF-8">
    <title>CSS Breadcrumb Design | bengalitut.com</title>


    <link href="https://stackpath.bootstrapcdn.com/font-awesome/4.7.0/css/font-awesome.min.css" rel="stylesheet">
    <link href="https://fonts.googleapis.com/css?family=Quicksand&display=swap" rel="stylesheet">
    <link rel="stylesheet" href="style.css">
    </head>

    <body>
    <ul class="Bcrumb">
    <li>
    <a href="#">
    <i class="fa fa-bar-chart" aria-hidden="true"></i>
    <span class="text">CHARTS</span>
    </a>
    </li>
    <li>
    <a href="#">
    <i class="fa fa-html5" aria-hidden="true"></i>
    <span class="text">HTML 5</span>
    </a>
    </li>
    <li>
    <a href="#">
    <i class="fa fa-code" aria-hidden="true"></i>
    <span class="text">CODE</span>
    </a>
    </li>
    <li>
    <a href="#">
    <i class="fa fa-rss" aria-hidden="true"></i>
    <span class="text">BLOG</span>
    </a>
    </li>
    <li>
    <a href="#">
    <i class="fa fa-home" aria-hidden="true"></i>

    </a>
    </li>
    </ul>
    <h1>Stylish Bcrumb Design With HTML and CSS</h1>
    <span>By Admin - 16 July, 2019 <i class="fa fa-thumbs-up" aria-hidden="true"></i><i class="fa fa-twitter" aria-hidden="true"></i>

    </span>

    </body>
    </html>
    Css
    body {
    padding: 100px 100px;
    background-color: #fff;
    font-family: 'Quicksand', sans-serif;
    }

    ul.Bcrumb {
    display: inline-block;
    list-style: none;
    }
    ul.Bcrumb li {
    float: right;
    padding: 5px;
    background-color: #212121;
    border-radius: 50px;
    position: relative;
    margin-left: -50px;
    transition: all 0.2s;
    margin-top: 3px;
    }
    ul.Bcrumb li a {
    overflow: hidden;
    border-radius: 50px;
    transition: all 0.2s;
    text-decoration: none;
    height: 50px;
    width: 50px;
    background-color: #ff4b4b;
    text-align: center;
    min-width: 50px;
    display: block;
    line-height: 50px;
    padding-left: 52px;
    padding-right: 33.33333px;
    color: #fff;
    font-size: 18px;
    font-weight: 900;
    }
    ul.Bcrumb li a i {
    display: inline-block;
    }
    ul.Bcrumb li a .text {
    display: none;
    opacity: 0;
    }
    ul.Bcrumb li a:hover {
    width: 200px;
    background-color: #e60023;
    }
    ul.Bcrumb li a:hover .text {
    display: inline-block;
    opacity: 1;
    }
    ul.Bcrumb li:last-child a {
    padding: 0;
    }
    ul.Bcrumb li:last-child:hover {
    padding: 3px;
    margin-top: 0;
    }
    ul.Bcrumb li:last-child:hover a {
    width: 60px;
    height: 60px;
    line-height: 60px;
    }
    span i {
    margin-left: 5px;
    display: inline-block;
    }
    span i:nth-child(1) {
    color: #4267b2;
    }
    span i:nth-child(2) {
    color: #1da1f2;
    }
    আজকের মত এখানেই শেষ করছি। বুঝতে সমস্যা হলে কমেন্ট করে জানাবেন।

    Tuesday, July 16, 2019

    Root না করেই মোবাইলের Volume Button, Power Button দিয়ে গান বদলান ও Flash Light জ্বালান

    July 16, 2019 0

    আমরা অনেকেই মোবাইল Root করে ব্যবহার করে থাকি। রুট করে মোবাইল চালানোর মজাই আলাদা এটা শুধু তারাই বলতে পারবে যারা মোবাইল রুট করেছে। রুট করে মোবাইলে অনেক সুবিধা পাওয়া যায়।যেমনঃ Custom Rom, Button Customization, Custom Recovery, Rom Backup, Custom Boot Animation, Ram বাড়ানো এরকম অনেক কাজ করা যায় মোবাইল রুট করে। তারমধ্যে অন্যতম একটা হলো বাটন কাস্টোমাইজ করা।
    অর্থাৎ Volume Button, Home Button, Power Button ইত্যাদি বাটন গুলো তাদের নির্দিষ্ট কাজ ছাড়াও অন্য কাজে ব্যবহার করা যায়। যেমনঃ Volume Button দিয়ে গান পাল্টানো, Power Button দিয়ে Flash Light জ্বালানো, স্ক্রিনশট নেওয়া, গান বন্ধ চালু করা ইত্যাদি।
    তো যারা মোবাইল রুট করেছে তারা অবশ্যই এগুলো জানে। আমরা মোবাইল রুট করে সাধারণত Xblast Tools, Xposed Torch ইত্যাদি Software ব্যবহার করে এ কাজ গুলো করে থাকি।
    বন্ধুরা আজকে আমি যে Software টা নিয়ে এসেছি এটা দিয়ে ওপরের প্রায় সবগুলো কাজ করতে পারবেন। আর এসব করতে হলে আপনার মোবাইলকে রুট করা লাগবে না এটাই হলো এই Software এর সবচেয়ে বড় সুবিধা। তাহলে চলুন শুরু করা যাক।
    প্রথমে নিচের লিংক থেকে Software টা ডাউনলোড করে নিন। এটা Pro Version তাই এতে সব সুবিধা পাবেন। আর এই Software টা Android Version 7 থেকে শুরু করে উপরের ভার্শন গুলোতে ভালোভাবে কাজ করবে। নিচের গুলোতে কাজ করবে কিনা আমি বলতে পারি না, আপনি ট্রাই করতে পারেন।
    Name: Button Mapper Pro
    Size: 4.51 MB
    Download: Click Here (Mega Cloud)
    ডাউনলোড করে install করুন এবং ওপেন করুন। ওপেন করার পর কিছু Permission চাইবে দিয়ে দিন। এবার আপনার পছন্দ মত আপনি Volume Button, Power Button ইত্যাদির কাজ কাস্টমাইজ করে নিন।যেমনঃ Volume Up Button ডাবল ক্লিক, সিংগেল ক্লিক, লং ক্লিক ইত্যাদি।

    তাছাড়া আপনি কোন কোন Apps এ এইটা করতে চান তাও সিলেক্ট করতে পারবেন, নিচের সেটিং অপশন থেকে Long Press Delay সিলেক্ট করতে পারবেন।
    বাটন কাস্টমাইজ করে কি কি বসানো যাবে তার কিছু স্ক্রিনশট দিলাম।

    তাছাড়া এই এপ এর কাজ খুবই সহজ আশা করি আপনারা নিজে নিজেই করে নিতে পারবেন। আমি এই পোস্টে খুব সহজ ভাবে বোঝানোর চেষ্টা করেছি যদি তারপরও বুঝতে না পারেন তবে কমেন্ট করে জানাবেন অথবা আমার Facebook Page এ মেসেজ করতে পারেন।
    ভালো লাগলে পোস্ট টা শেয়ার করতে ভুলবেন না।

    Monday, July 15, 2019

    আপনার Blogger Blog এ Top Commenters System করুন খুব সহজে

    July 15, 2019 0

    বন্ধুরা আজকে আমি আপনাদের সাথে ব্লগার ব্লগের দারুন মজার একটি System শেয়ার করবো..
    আশাকরি আপনাদের ভালো লাগবে।আমার যারা বাংলার বিভিন্ন জনপ্রিয় ব্লগ ভিজিট করি তখন দেখে থাকি সেখানে জনপ্রিয় লেখক বা সেরা মন্তব্য কারি বা ইংরেজিতে Top Commenter নামে একটি অপশন থাকে।আশাকরি সবাই বুঝতেই পারছেন। ঠিক ধরেছেন এই সেরা মন্তব্য কারি অপশন ব্যবহার করে আপনি দেখিয়ে দিতে পারবেন আপনার ব্লগে সব থেকে বেশি কে মন্তব্য করেছে এবং আপনার ব্লগের সেরা মন্তব্য কারি। তাহলে নিচে থেকে দেখে নিন কিভাবে আপনার ব্লগে যুক্ত করবেন।

    ☞ আজকের এই সেরা মন্তব্য কারি অপশন টি দেখতে ঠিক উপরের ফটো এর মতো তাই এক্সট্রা কোন ডেমো দিলাম না।

    কিভাবে আপনার ব্লগে এই অপশন যুক্ত করবেনঃ

    Step 1:
    ∆ প্রথমে আপনার ব্লগার ব্লগ লগইন করে ড্যাশবোর্ডে যান।
    ∆ তারপর Layout থেকে HTML/Javascript এ ক্লিক করুন
    ∆ এবার Content ঘরে নিচের কোড গুলো কপি করে নিয়ে পেস্ট করুন।
    ∆ সব শেষ Save এ ক্লিক করে বেরিয়ে আসুন।
    <div class=’top-commentators0′>
    <h2>
    TOP COMMENTERS
    </h2>
    <style type=”text/css”>
    .top-commentators0 {
    background: rgba(239, 245, 223, 1);
    padding: 10px;
    border: 1px solid rgba(220, 224, 219, 1);}
    .top-commentators {
    margin: 5px 0px;
    padding: 3px;
    margin-left: 10px;}
    .top-commentators0 h2 {
    font-size: 14px;
    border-width: 0px 0px 1px;
    border-style: solid;
    border-color: #BBB;
    padding: 3px 5px 8px 20px !important;}
    .avatar-top-commentators {
    vertical-align: middle;
    border-radius: 3px;
    margin-left: 12px;}
    .top-commentators b, strong {
    padding: 3px;
    background: none repeat scroll 0% 0% rgba(3, 117, 28, 1);
    border-radius: 50%;
    font-weight: normal !important;
    color: #fff;
    padding: 1px 3px 3px 7px;}
    .top-commentators .commenter-link-name {
    padding-left:0;
    }
    </style>
    <script type=”text/javascript”>
    var maxTopCommenters = 8;
    var minComments = 1;
    var numDays = 0;
    var excludeMe = true;
    var excludeUsers = [“Anonymous”, “Your Blog Author Name”];
    var maxUserNameLength = 42;
    //
    </script>
    <script src=”https://dev.digitcrop.com/top-commentators.js”></script>
    </div>

    ☞ ব্যাস হয়েগেল আশাকরি বুঝতে কোন রকম সমস্যা হলনা কোন রকম সমস্যা হলে নিচে কমেন্ট করে জানাবেন আমি হেল্প করবো।আশাকরি কোন সমস্যা হবে না। তাহলে আজকের মতো এই পর্যন্ত ভালো থাকবেন পোস্ট টি ভালো লাগলে বন্ধুদের সাথে শেয়ার করবেন।

    Sunday, July 14, 2019

    Root না করেই মোবাইলের Font Style চেন্জ করুন খুব সহজে

    July 14, 2019 0

    আজকে আমি একটি আকর্ষণীয় বিষয় সম্পর্কে বলতে যাচ্ছি আর সেটি হলো ফন্ট নিয়ে।আমার টিউনের মূল বিষয় হলো, কিভাবে মোবাইল রুট (root) করা ছাড়া বা কম্পিউটারের সাহায্য ছাড়া নিজে নিজে মোবাইলে সিস্টেম ফন্ট চেঞ্জ করবেন!
    বিষয়টা খুব ইন্টারেস্টিং,তাই না?
    কারণ সবাই চায় নিজের মোবাইলে সুন্দর রূপ দিতে,তার মোবাইলকে আরো স্মার্ট করতে,এর পিছনে Font Style এর গুরুত্ব অপরিসীম।
    বিশেষত আমাদের বাংলা লেখা অনেকের মোবাইলে এটি সিস্টেমে খুব বাজে ধরণের স্টাইল,এটিও খুব সহজে চেঞ্জ করতে পারবেন।
    যাক মূল কথায় আসি,প্রথমত ফন্ট চেঞ্জ করতে হলে,আপনার মোবাইলে সেটিং এ ফন্ট চেঞ্জ অপশন থাকতে হবে যেমন আমার মোবাইলে দেখুন এখানে সিস্টেমে ফন্ট চেঞ্জ এর অপশন আছে।

    তাহলে চলুন শুরু করা যাক তবে শুরু করার আগে বলে রাখি সবকিছু নিজ দায়িত্বে করবেন, মোবাইল এর কোন সমস্যা হলে আমি বা BengaliTut.Com দায়ী থাকবে না।
    প্রথমে আপনাকে একটা Apps ডাউনলোড করতে হবে।
    Name: Zfont
    Size: 6MB
    Download: Click Here (Play Store)

    এরপর আপনি Google থেকে আপনার পছন্দের ফন্ট ডাওনলোড করুন। Google সার্চ বারে Stylish Font দিয়ে সার্চ দিলে ফন্ট এসে যাবে,এবার নিচের ছবি মোতাবেক কাজ করুন,ইনস্টল করার পর ওপেন করুন।

    তারপর ডান থেকে বামে স্ক্রল করলে Local নামক একটি অপশন দেখা যাবে ওটাতে ক্লিক করুন

    তারপর Aa লেখায় ক্লিল করুন।

    এবার আপনি Google সার্চ করে যে ফন্ট টি ডাউনলোড করেছিলেন ঐটি সিলেক্ট করুন।

    তারপর নিচের ছবির মতো Set ক্লিক করুন আপনি চাইলে ওই ফন্ট টা লিখে চেক করতে পারবেন।যেমনঃ আমি “আমার সোনার বাংলা” লিখেছি।

    এরপর আপনার মোবাইল এর নাম সিলেক্ট করুন। এখানে যদি আপনার মোবাইল এর নাম না থাকে তাহলে অন্যগুলো দিয়ে দেখতে পারেন।

    এবার আপনার মোবাইল এর Android Version সিলেক্ট করুন। ভার্সন জানা না থাকলে Auto তে ক্লিক করে দিন।

    এবার নিচের ছবির মত আসলে এটা install করুন।

    install করা হলে মোবাইল রিস্টার্ট দিন। এরপর Change Font অপশনে গিয়ে দেখুন আপনার কাংক্ষিত Font টি চলে এসেছে।


    আশা করি বুঝতে পেরেছেন।কোনকিছু বুঝতে সমস্যা হলে কমেন্ট করে জানাবেন। ভালো লাগলে পোস্ট টি শেয়ার করবেন।

    Saturday, July 13, 2019

    মোবাইলের যেকোন ছবিতে অটোমেটিক Time Stamp লাগান

    July 13, 2019 0

    হ্যালো বন্ধুরা, আজকে আমি যে App টা নিয়ে কথা বলব, যার সাহায্যে আপনি মোবাইলে কোন ছবি তুললে তাতে অটোমেটিক টাইম,ডেট,বার এর স্ট্যাম্প লেগে যাবে নিচের ছবির মত।
    khoshbash high school
    এরকম সিস্টেম অনেক মোবাইলেই বিল্ট ইন থাকে, কিন্তু যাদের মোবাইলে এরকম সিস্টেম নেই এবং আপনি চান যে আপনার ছবিটা কত তারিখে তুলেছেন তা সহ লেখা থাকুন তাদের জন্য আমার আজকের পোস্ট।
    তো বন্ধুরা প্রথমে নিচের লিংক থেকে সফ্টওয়্যারটা ডাউনলোড করে নিন। এটা প্রো ভার্শন এতে কোন এডস নেই।
  • Click Here To Download (Mega Link)

  • ডাউনলোড করার পর ইনষ্টল করুন। তারপর ওপেন করার পর কিছু পার্মিশন চাইবে, পার্মিশন গুলো দিয়ে দিন।

    এবার Auto Time Stamp অপশনটা চালু করে দিন।

    এটা চালু করার পর আপনি ছবি তুললেই তাতে অটোমেটিক টাইম স্ট্যাম্প লেগে যাবে। আপনি ইচ্ছা করলে এটা আপনার পছন্দমত কাস্টোমাইজ করে নিতে পারবেন। তাছাড়া এটা Pro Version হওয়ার কারনে ইচ্ছামত Font Style, Date Format, Text Position সিলেক্ট করতে পারবেন।


    আশা করি বুঝতে পেরেছেন, আজকের মত এখানেই শেষ করছি। কোনকিছু বুঝতে সমস্যা হলে কমেন্ট করে জানাবেন। ভালো লাগলে পোস্ট টি ফেসবুকে শেয়ার করুন।