BengaliTut.Com

Saturday, June 22, 2019

আপনার ওয়ার্ডপ্রেস সাইটের জন্য নিয়ে নিন অসাধারণ একটা থিম

June 22, 2019 0
একটা ব্লগ হতে পারে সারাজীবনের আয়ের মাধ্যম।বর্তমান সময়ে প্রায় সবারই একটা করে ব্লগ অথবা ওয়েবসাইট থাকে হোক সেটা ওয়ার্ডপ্রেসে বা ব্লগারে বা অন্যকোন মাধ্যমে।তবে শুধু সাইট থাকলেই হলো না,সাইটের প্রাণ হলো ভিজিটর।ভিজিটর না থাকলে সাইটের কোন দাম নেই।আর সাইটে ভালো ভিজিটর পেতে হলে প্রয়োজন ভালো ভালো কন্টেন্ট,এসইও এবং ইউনিক ডিজাইন।সাইট যদি দেখতে সুন্দর হয় ও রেসপন্সিভ হয় অর্থাৎ যেকোন ডিভাইস এর সাথে সামন্জ্ঞসপূর্ণ।যেমনঃ কম্পিউটার দিয়ে সাইট ভিজিট করলে কম্পিউটার ভার্সন এবং মোবাইল দিয়ে ভিজিট করলে মোবাইল ভার্সন আসবে।সাইট যদি রেসপন্সিভ হয় তাহলে সার্চ ইন্জ্ঞিনে ভালো র্যাংক (Rank) পাওয়া যায় এবং ভিজিটরও আস্তে আস্তে বাড়তে থাকে।
আজকে এমন একটা ওয়ার্ডপ্রেস থিম শেয়ার করবো যেটা দেখতে খুব সুন্দর এবং ফুল রেসপন্সিভ।থিমটা ডাউনলোড করার আগে নিচে কিছু স্ক্রিনশট দিলাম ডেমো দেখে নিন।


কি কেমন লাগলো? নিশ্চয় খুব ভালো লেগেছে। এই থিম এর ডিজাইন একদম ইউনিক,কালারটাও খুব সুন্দর।তাছাড়া থিমটা ফুল রেসপন্সিভ হওয়ায় এটা ব্যাবহার করলে সার্চ ইন্জ্ঞিনে ভালো র্যাংক পাবেন।তাহলে আর দেরি না করে নিচের লিংক থেকে থিমটা ডাউনলোড করে নিন।
  • Click Here To Download


  • Wordpress এ থিমটা কিভাবে ইনষ্টল করবেনঃ

    ১. প্রথমে আপনার সাইটের Admin Panel এ যান।
    ২. তারপর Menu তে ক্লিল করুন, Appearance >> Theme >> Add New >> Upload >> Active করে দিন। এবার আপনার সাইটে ভিজিট করে দেখুন থিম ইনষ্টল হয়ে গিয়েছে, আশা করি বুঝতে পেরেছেন,তবুও যদি বুঝতে সমস্যা হয় তাহলে কমেন্ট করুন অথবা আমাদের Facebook Page এ মেসেজ করুন।
    ভালো লাগলে পোস্ট টা শেয়ার করুন।

    Friday, June 21, 2019

    ২য় পর্যায়ে একাদশ শ্রেণীতে ভর্তি আবেদন করার সম্পূর্ণ নিয়ম

    June 21, 2019 0

    গত ১৮ তারিখ থেকে ২য় পর্যায়ে একাদশ শ্রেণীতে ভতি আবেদন করা কাজ শুরু হয়েছে।

    যারা ১ম পর্যায়ে কোনো কলেজে মনোহীত হনি বা হয়েছে কিন্তু সে কলেজে ভর্তি হতে ইচ্ছা প্রকাশ করছেন না তারা আমার পূনরাই আবার আবেদক করতে পারবেন (সিলেকশন ফি না দিয়ে থাকেন তা হলে)

    দ্বিতীয় পর্যায়ে তালিকায় থাকা শিক্ষার্থীরা ২২-২৩ জুন সিলেকশন নিশ্চয়ন করতে হবে।…রেজাল্ট বের হবে ২১-২২ জুন

    তো দেখে নিয়া যাক কি ভাবে কি করবেন।

    প্রথমে আপনাকে ১৫০ টাকা ফি দিয়ে অনলাইনে আনবেন করতে হবে।
    আছ কাল সবার বিকাশ একাউন্ট আছে। তাই দেখে নিন কি ভাবে বিকাশ অ্যাপ দিয়ে ফি প্রদান করার নিয়ম

    প্রথমে বিকাশ অ্যাপ ঢুকেন।

    তার পর পে-বিল সিলেক্ট করেন।

    তার পর XI Class admisson সিলেক্ট করেন।

    পেমেন্ট কোড হচ্ছে বোর্ডের ৩ টি অক্ষর, পাশের সন, রোল নম্বর (কোন স্পেস হবে না) (উদাহরণঃ COM2018657579) তার পর একটা কন্টাক্ট নাম্বার দিয়ে এরো চিহ্নতে ক্লিক করেন।

    এরপর আপনার নাম,ঠিকানা সব ঠিকআছে কিনা তা ভালোভাবে দেখে নিয়ে এরো চিহ্নে ক্লিক করুন।

    এবার আপনার বিকাশ এর পিন নম্বর দিয়ে এরো চিহ্নে ক্লিক করুন।


    পেমেন্ট করার ৫-১০ মিনিট পর www.xiclassadmission.gov.bd ওয়েবসাইটে প্রবেশ করুন। এরপর Apply Now তে ক্লিক করুন।

    এবার আপনার SSC রোল নং,আপনার SSC বোর্ড,পাশের সন, রেজিষ্ট্রেশন নম্বর এবং Verification Code টা দিয়ে Next বাটনে ক্লিক করুন..

    এবার পেমেন্ট করার সময় কন্টাক্ট নম্বর হিসেবে যেই নম্বরটা দিয়েছিলেন ওটা দুইবার দিয়ে Next এ ক্লিক করুন।


    এবার চলে এলো কলেজ বাছাই করার ফর্ম।
    সর্বনিম্ন ৫টি কলেজ ও সর্বোচ্চ ১০টি কলেজ বাছাই করতে হবে।

    ১। আপনি যে কলেজে পড়তে চান সে
    কলেজের বোর্ড সিলেক্ট করুন
    ২। জেলা বাছাই করুন
    ৩। থানা বাছাই করুন
    ৪। আপনার পছন্দের কলেজটি বাছাই করুন।
    ৫। শিফ্ট পছন্দ করুন
    ৬। বাংলা বা ইংরেজি ভার্সন বাছাই করুন
    ৭। যে গ্রপে পড়তে চান।
    ৮। যদি আপনার কোন কোটা থাকে
    (মুক্তিযোদ্ধা/শিক্ষা/প্রবাসী)
    ৯। গভর্নিং বডি কোটা (যদি থাকে)

    এবার Add This College বাটনে ক্লিক করে কলেজটি পছন্দ তালিকায় যুক্ত করুন। আপনি তিনটি গ্রপে (ব্যবসায়/মানবিক/বিজ্ঞান) একটি কলেজকে তিনবার যুক্ত করতে পারবেন।

    তারপর Submit Application এ ক্লিক করুন।

    তারপর আপনি চাইলে Print Version বাটনে ক্লিক করে এটা প্রিন্ট করে নিতে পারেন।

    তো বন্ধুরা আজকের মত এখানেই শেষ করছি। কোনকিছু বুঝতে সমস্যা হলে কমেন্ট করুন অথবা আমাদের Facebook Page এ মেসেজ করুন।

    Wednesday, June 19, 2019

    ডাউনলোড করে নিন অসাধারণ একটা Blogger Template

    June 19, 2019 0
    বন্ধুরা আজকে খুব সুন্দর একটা ব্লগার টেম্পলেট শেয়ার করবো। Template টা Premium Version তাই আপনারা ইচ্ছা মত Edit, Customize করে নিতে পারবেন সাইটের কোন ক্ষতি ছাড়া, তাছাড়া এই টেম্পলেট এর ফুটারে কোন ক্রেডিট নেই। তাহলে বন্ধুরা টেম্পলেটটির ফিচার সম্পর্কে জেনে নিন।

    Template Features:

    1. Seo Ready
    2. 3 Columns Footer
    3. Ads Ready
    4. Personal Pages
    5. Page Navigation Menu
    6. Social Bookmark Ready
    7. Post Thumbnails
    8. 1 Right Sidebar
    9. Responsive
    10. 1 Sidebar
    11. Simple Design

    নিচে এই Template টার কিছু স্ক্রিনশট দিলাম দেখে নিন।

    আশা করি ভালো লেগেছে। এখন নিচের লিংক থেকে ডাউনলোড করে নিন।
    Click Here To Download
    আজকের মত এখানেই শেষ করছি। ভালো লাগলে পোস্ট টা শেয়ার করতে পারেন।

    Tuesday, June 11, 2019

    [Free Fire] Season 13 Elite Pass, Emote এবং Character Level Up Card নিয়ে নিন ১০০% ফ্রিতে

    June 11, 2019 2

    বর্তমান সময়ে অন্যতম জনপ্রিয় একটা গেমস হলো Free Fire.. Play Store এ এই গেমস এর ডাউনলোড ১০০ মিলিয়ন এর চেয়েও বেশি। আমরা যারা গরিব 😁 কম দামি মোবাইল চালাই তারাতো আর Pubg খেলতে পারিনা তাই আমাদের জন্য Free Fire.. এটা 1GB Ram মোবাইলেও খেলা যায়।
    তো বন্ধুরা আজকে আমি কথা বলবো কিভাবে Free Fire এ কোন ডায়মন্ড রিচার্জ বা টাকা খরচ না করে Elite Pass, Emote এবং Character Level Up Card নিবেন। তাহলে চলুন শুরু করা যাক।

    বন্ধুরা আমরা Free Fire যে ফ্রিতে Elite Pass নিবো এটা একটা Event এর মাধ্যমে। এই Event টা চলবে 11-18 June 2019 পর্যন্ত।

    Event সম্পর্কে তথ্যঃ

    এই Event চলাকালীন প্রতিদিন Game এ লগিন করলে একটা টোকেন পাবেন এবং ২টা কিল করলে একটা টোকেন।
    অর্থাৎ প্রতিদিন আপনি ২টা টোকেন কালেক্ট করতে পারবেন।
    এই টোকেন গুলো এক্সচেঞ্জ করে আপনি ফ্রিতে Elite Pass, Emote এবং Character Level Up Card নিতে পারবেন।

    বন্ধুরা আশা করি বুঝতে পেরেছেন। আরো ভালোভাবে বুঝার জন্য নিচের ভিডিওটা দেখতে পারেন।

    আজকের মত এখানেই শেষ করছি, ভালো লাগলে পোস্ট টা শেয়ার করবেন।

    Friday, June 7, 2019

    যেকোনো ছবির Background রিমুভ করুন মাত্র ৫ সেকেন্ডে

    June 07, 2019 0

    আমরা অনেক সময় ফটো এডিট করার সময় ছবির ব্যাকগ্রাউন্ড রিমুভ করার প্রয়োজন হয়। ফটো এডিটিং এখন একটা আর্টে পরিণত হয়েছে। Dslr দিয়ে ছবি তুলে সুন্দর করে এডিট করে তা ফেসবুক বা ইন্সটাগ্রামে আপলোড করা অনেকের ডেইলি রুটিন। তাই ফটো এডিটিং করতে পারা এখন অনেক ভালো একটা কাজ। বিভিন্ন কোম্পানি তাদের লোগো, ব্যানার ইত্যাদি এডিট করার জন্য লোক নিয়ে থাকে। তাই ফটোশপ এর কাজ জানা থাকলে খুব ভালো হয়। যারা কম্পিউটারে PhotoShop এ এডিট করে তাদের জন্য ছবির Background রিমুভ করা তেমন কঠিন কাজ নয় তবুও ১০০% সঠিক ভাবে করা যায়না। আর মোবাইল দিয়ে রিমুভ করতে গেলে অনেক সময় লেগে যায়, যা খুবই বিরক্তিকর লাগে।
    তাই বন্ধুরা আজকে আমি দেখাবো মাত্র একটা ক্লিক করেই ৫ সেকেন্ডে যেকোন ছবির Background রিমুভ করবেন। তাহলে চলুন শুরু করা যাক।

    প্রথমে নিচের ওয়েবসাইট টাতে চলে যান।
  • www.remove.bg



  • তারপর নিচের ছবির মত Select Photo তে ক্লিক করে আপনার ছবিটা সিলেক্ট করে দিয়ে Done ক্লিক করুন।

    তারপর আপনার ছবিটা আপলোড হওয়া শুরু হবে। আপলোড হবার পর সাথে সাথে আপনার কাংক্ষিত Background ছাড়া ছবি চলে আসবে নিচের মত

    তো বন্ধুরা আজকের মত এখানেই শেষ করছি। পোস্ট টা কেমন লাগলো কমেন্ট করে জানাতে ভুলবেন না। ভালো লাগলে পোস্ট টা ফেসবুকে শেয়ার করতে পারেন।

    Sunday, June 2, 2019

    Facebook আইডির নাম অদৃশ্য করুন খুব সহজে

    June 02, 2019 0

    আমরা যারা ইন্টারনেট ব্যবহার করি তারা প্রায় সবাই ফেসবুক ব্যবহার করে থাকি। ফেসবুকে অনেক সময় দেখা যায় নাম ছাড়া আইডি। তো মনে হয়তো প্রশ্ন এসেছে এরকম আইডি কিভাবে করে?
    বন্ধুরা আজকে আমি এটাই দেখাবো। আমি যে পদ্ধতি টা দেখাবো এটা দিয়ে আপনারা ইচ্ছা করলে নাম ছাড়া নতুন আইডি খুলতে পারবেন অথবা চাইলে পুরোনো আইডির নাম পরিবর্তন করে নাম ছাড়া বানাতে পারবেন। তাহলে চলুন শুরু করা যাক।
    Step:- 1
    প্রথমে ফেসবুক এর Settings এ চলে যান তারপর >> Personal information >> Name >> এখানে গিয়ে আগের First & Last Name গুলো কেটে ՙՙՙՙ এইটা বসিয়ে দিয়ে Review Changes এ ক্লিক করুন নিচের ছবির মত।

    তারপর পাসওয়ার্ড দিয়ে Save করুন।

    নিচের ছবিতে প্রমাণ দেখুন।

    আশা করি বুঝতে পেরেছেন, আজকের মত এখানেই শেষ করছি। কোনকিছু বুঝতে সমস্যা হলে কমেন্ট করে জানাবেন।

    Friday, May 10, 2019

    যারা নতুন নতুন বাংলা টাইপিং শিখছেন তাদের জন্য অসাধারণ একটি বাংলা কিবোর্ড

    May 10, 2019 0

    আমাদের প্রতিদিন এর জীবনে মোবাইল একটি নিত্য প্রয়োজনীয় বস্তু আর মোবাইল এর খুবই গুরুত্বপূর্ণ একটি অংশ হলো কিবোর্ড। মেসেজ পাঠানো, সার্চ করা ইত্যাদি সকল কাজেই কিবোর্ড এর প্রয়োজন। আমরা যারা বাংলায় লিখতে ভালোবাসি তারা নানা রকম বাংলা কিবোর্ড ব্যবহার করে থাকি। বর্তমানে সেরা দুটি বাংলা কিবোর্ড হলো: Ridmik Keyboard এবং Avroid Keyboard. এই দুটি কিবোর্ড বাংলা লেখার জন্য খুবই ভালো।
    তবে যারা নতুন নতুন বাংলা টাইপিং করছেন তাদের জন্য একটু সমস্যা হবে কারন এসব কিবোর্ড এ অক্ষরগুলো সিরিয়াল অনুসারে থাকে না। আজ আমি যে কিবোর্ড টা শেয়ার করবো এটার সবচেয়ে বড় সুবিধা হলো এটার অক্ষর গুলো সব সিরিয়াল অনুসারে। যারা নতুন বাংলা টাইপিং করছেন তাদের জন্য একদম পারফেক্ট এই কিবোর্ড টা।

    এই কিবোর্ড এর সুবিধাগুলোঃ

    ১. অক্ষর গুলো সিরিয়াল অনুসারে থাকবে
    ২. এটাতে প্রচুর ইমোজি আছে
    ৩. যুক্ত বর্ণগুলো আলাদা ভাবে লেখা আছে
    ৪. প্রতিদিন ব্যবহার করা হয় এমন কিছু বাক্য আগে থেকে লেখা আছে
    নিচে কিবোর্ড টার কিছু স্ক্রিনশট দিলাম দেখে নিনঃ

    আশা করি ভালো লেগেছে তো আর দেরি না করে নিচের লিংক থেকে কিবোর্ড টা ডাউনলোড করে নিন।
    Download

    আপনার ওয়েবসাইটের জন্য নিয়ে নিন Live Tv Channels এবং Live Radio Channels কোড

    May 10, 2019 0

    বন্ধুরা আজকে আমি কিছু Tv Channel ও Radio Channel এর কোড শেয়ার করবো, যেগুলো আপনার সাইটে বসালে সেখান থেকে লাইভ টিভি দেখা যাবে এবং লাইভ রেডিও শোনা যাবে।
    বন্ধুরা আমি কোডগুলো Google Drive এ Upload দিয়ে দিয়েছি এগুলো ডাউনলোড করে আপনি সাইটের যে পেজে লাইভ টিভি অথবা রেডিও দিতে চান সেখানে কোডগুলো বসিয়ে দিলেই হবে। তাহলে নিচের লিংক থেকে কোডগুলো ডাউনলোড করে নিন।

    Live Tv Channel Code:

  • Islamic Channels Code:


  • Download Code
    Channels:
    1. ATN Islamic
    2. Madani Bangla
    3. Makkah TV
    4. Madina TV
    5. Hadi TV
    6. Zee Salaam
    7. Wesal TV
  • Other Tv Channels Code:


  • Download Code
    Channels:
    1. Channel 24
    2. Channel 9
    3. Boishakhi Tv
    4. G Tv
    5. Desh Tv
  • Live Radio Channels Code:


  • Download Code
    Channels:
    1. Abc Radio
    2. Radio Bhumi
    3. Colors Fm
    4. Jago Fm
    আজকের পোস্ট এ পর্যন্তই, কোনকিছু বুঝতে সমস্যা হলে কমেন্ট করুন অথবা আমাদের Facebook Page এ মেসেজ করতে পারেন।

    Wednesday, May 8, 2019

    আপনি নিজেই বানিয়ে নিন Bit.ly এর মত একটি Url Shortner সাইট

    May 08, 2019 0

    বর্তমান সময়ে অন্যতম জনপ্রিয় কিছু শর্ট করার সাইট হলো
  • LinkShrink

  • Adfly

  • Bitly


  • এসব সাইট বর্তমানে খুবই জনপ্রিয় কিছু Url Shortner Site.. বিশ্বের সব মানুষ এ সাইট গুলো ব্যবহার করে থাকে। আমাদের প্রতিদিন বিভিন্ন কাজের জন্য বিভিন্ন Link/Url প্রয়োজন হয়, আর এসব লিংক অনেক সময় অনেক বড় থাকে যা দেখতে বাজে লাগে বা কাজে অসুবিধা হয় তাই আমরা লিংক শর্ট করার সাইট থেকে লিংকগুলো শর্ট বা ছোট করে ব্যবহার করে থাকি।
    বন্ধুরা আজকে আমি দেখাবো কিভাবে আপনি কোন কোডিং ছাড়াই খুব সহজে একটা Url Shortner সাইট বানাতে পারেন। যাদের ওয়েবসাইট বানানোতে একটু হলেও কাজ করার অভিজ্ঞতা আছে তারা খুব সহজেই কোন ঝামেলা ছাড়া বানিয়ে ফেলতে পারবেন আশা করি। তবুও যদি কোন সমস্যা হয় তবে কমেন্ট করে জানাবেন অথবা আমাদের Facebook Page এ Message করবেন।

    সাইট বানাতে যা যা লাগবেঃ

    ১. হোস্টিং
    ২. ডোমেইন
    ৩. স্ক্রিপ্ট
    আপনারা সাইটটা ইচ্ছা করলে ফ্রি হোস্টিং এ বানাতে পারবেন তবে যদি ভালোভাবে সাইট চালানোর আশা থাকে তাহলে পেইড হোস্ট নেওয়াই ভালো।
    000Webhost.Com থেকে ফ্রি হোস্ট নিতে পারবেন। আর পেইড হোস্টিং নিতে হলে আমি বলবো নিচের সাইটটা থেকে নিতে। এই সাইটে আপনি বিকাশ/রকেট ইত্যাদি দিয়েই কমদামে হোস্টিং কিনতে পারবেন।
  • Hostbijoy.Com

  • হোস্টিং নেওয়া হলে এবার প্রয়োজন একটা ডোমেইন। আপনি ইচ্ছা করলে Freenom.Com থেকে ফ্রি ডোমেইন (.tk/.ga/.ml/.gq/.cf) নিতে পারবেন। ডোমেইন কিভাবে নিতে হয় তা না জানলে নিচের পোস্টটা পড়ে আসতে পারেন।
  • Freenom থেকে কিভাবে ডোমেইন নিবেন?

  • ডোমেইন নেওয়ার পর এবার আপনার ডোমেইনটি আপনার নেওয়া হোস্টিং এর সাথে কানেক্ট করে ফেলুন। যদি না পারেন তবে কমেন্ট বা ফেসবুকে মেসজ করবেন। এবার সাইট তৈরি করা যাক।
    প্রথমে নিচের লিংক থেকে স্ক্রিপ্ট টা ডাউনলোড করে নিন।
    Download AdLinkFly V5.3.2 Script
    >> এবার আপনার হোস্টিং এর Cpanel থেকে File Manager এ চলে যান এরপর যে ডোমেইন টি এড করছেন ঐ নামের Folder টি Open করুন এবং Script টি আপলোড করে দিন।
    >> এখন Zip টি Unzip করে মেইন Zip File টি ডিলিট করে দিন।
    >> এখন আপনাকে একটি Database বানাতে হবে। Database কিভাবে বানাবেন তা জানতে নিচের পোস্ট টি দেখে আসুন।
  • দেখে নিন কিভাবে Database বানাতে হয়

  • >> এবার আপনি যে ডোমেইন টি নিয়েছেন তাতে Visit করুন এবং যে পেইজটি ওপেন হবে সেখানে নির্দেশনা অনুযায়ী Database এর User & Password দিয়ে Script install শুরু করুন।

    install হবার পর নিচের মত একটা পেইজ আসবে এখানে আপনি নতুন একটা Admin আইডি করুন।

    আমাদের কাজ শেষ এবার আপনার নেওয়া ডোমেইন দিয়ে ভিজিট করে দেখুন আপনার সাইট সম্পূর্ণ তৈরি।

    পোস্ট টি কেমন লাগলো তা কমেন্ট করে জানাতে ভুলবেন না, আর কোন সমস্যা হলেও কমেন্ট করুন। আজ এখানেই শেষ করছি। পোস্ট টি পড়ার জন্য আপনাকে অসংখ্য ধন্যবাদ।

    Tuesday, May 7, 2019

    তারাবি নামাজ পড়ার নিয়ম

    May 07, 2019 3

    রমজান মাসের রাতে এশার নামাজের চার রাকাত ফরজ ও দুই রাকাত সুন্নতের পর এবং বিতর নামাজের আগে দুই দুই রাকাত করে ১০ সালামে যে ২০ রাকাত নামাজ আদায় করা হয়, একে ‘তারাবি নামাজ’ বলা হয়। আরবি ‘তারাবিহ’ শব্দটির মূল ধাতু ‘রাহাতুন’ অর্থ আরাম বা বিশ্রাম করা। শরিয়তের পরিভাষায় মাহে রমজানে তারাবি নামাজ পড়াকালীন প্রতি দুই রাকাত অথবা চার রাকাত পরপর বিশ্রাম করার জন্য একটু বসার নামই ‘তারাবি’।
    রোজাদার সুবহে সাদিক থেকে সূর্যাস্ত পর্যন্ত রোজা রেখে ক্লান্ত হয়ে যান। তারপর রাতে এশা ও তারাবি নামাজ দীর্ঘ সময় ধরে পড়তে হয়। ফলে রোজাদার খুবই ক্লান্ত ও পরিশ্রান্ত হয়ে পড়েন, যেখানে পরিশ্রম ও কষ্ট বেশি, সেখানে ক্ষতিপূরণমূলক আরামের ব্যবস্থাও আছে। অবশ্য সিয়াম সাধনার মূল লক্ষ্য আরাম-আয়েশ প্রবণতা সংযতকরণ। এ জন্য দীর্ঘ নামাজের কঠোর পরিশ্রম লাঘব করার জন্য প্রতি দুই রাকাত বিশেষ করে প্রতি চার রাকাত পর একটু বসে বিশ্রাম করতে হয় এবং দোয়া ও তাসবিহ পাঠ করতে হয়; তাই এ নামাজকে ‘সালাতুত তারাবিহ’ বা ‘তারাবি নামাজ’ বলা হয়।

    রমজান মাসের নির্দিষ্ট নামাজ হচ্ছে সালাতুত তারাবিহ। তারাবির নামাজ হলো রোজার গুরুত্বপূর্ণ একটি অঙ্গ। রাসুলুল্লাহ (সা.) নিজে তারাবি নামাজ পড়েছেন এবং সাহাবায়ে কিরামকেও পড়ার জন্য আদেশ দিয়েছেন। তারাবি নামাজ নারী-পুরুষ উভয়ের জন্যই সুন্নতে মুয়াক্কাদা। এ নামাজ জামাতের সঙ্গে আদায় করা বেশি সওয়াবের কাজ। এ নামাজে কোরআন শরিফ খতম করা অধিক সওয়াবের কাজ। তবে সূরা-কিরাআতের মাধ্যমে আদায় করলেও তারাবির সওয়াব পাওয়া যায়। কোরআন মজিদ যে ৫৪০ রুকুতে বিন্যাসিত হয়েছে তা তারাবির নামাজে প্রতিদিন ২০ রাকাতে ২০ রুকু করে পড়লে ২৭ রমজান লাইলাতুল কদরে পবিত্র কোরআনের সম্পূর্ণটুকু যাতে তিলাওয়াত করা সমাপ্ত হয়, সেদিকে ইমাম সাহেবদের বিশেষভাবে খেয়াল রাখা দরকার।

    রাসুলুল্লাহ (সা.) তারাবি নামাজের জন্য রাতের কোনো বিশেষ সময়কে নির্দিষ্ট করে দেননি। তবে তারাবি নামাজ অবশ্যই এশার নামাজের পর থেকে সুবহে সাদিকের পূর্ববর্তী সময়ের মধ্যে আদায় করতে হবে। নবী করিম (সা.) এ নামাজ বেশির ভাগ সময় রাতের শেষাংশে আদায় করতেন এবং প্রথমাংশে বিশ্রাম নিতেন। তিনি বিশেষ কারণবশত নিয়মিত জামাতে ২০ রাকাত তারাবি পড়তেন না। কেননা নবী করিম (সা.) কোনো কাজ নিয়মিত করলে তা উম্মতের জন্য ওয়াজিব তথা অত্যাবশ্যকীয় হয়ে যায়। যার দরুন সালাতুত তারাবিহ সুন্নত, ওয়াজিব নয়; তবে সুন্নতে মুয়াক্কাদা বা জরুরি সুন্নত। ২০ রাকাত তারাবি নামাজ হওয়ার সপক্ষে হজরত ইবনে আব্বাস (রা.) থেকে বর্ণিত হাদিসে উল্লেখ আছে যে ‘নবী করিম (সা.) রমজান মাসে বিনা জামাতে (একাকী) ২০ রাকাত তারাবি নামাজ আদায় করতেন, অতঃপর বিতর নামাজ পড়তেন।’ (বায়হাকি)

    মহানবী (সা.) রমজান মাসে তারাবি নামাজ আদায় করার জন্য বিশেষভাবে উৎসাহ প্রদান করতেন। মাহে রমজানের তারাবি যদি একমাত্র ইমান ও পরকালের প্রত্যাশার তাগিদে পড়া হয়, তাহলে অতীত কালের সব অপরাধ ক্ষমা করে দেওয়া হবে। তারাবি নামাজের ফজিলত ও মর্যাদা সম্পর্কে রাসুলুল্লাহ (সা.) ইরশাদ করেছেন, ‘যে ব্যক্তি ইমানের সঙ্গে পুণ্য লাভের আশায় রমজানের রাতে তারাবি নামাজ আদায় করেন, তাঁর অতীতকৃত পাপগুলো ক্ষমা করা হয়।’ (বুখারি ও মুসলিম) মাহে রমজানে রোজা, তারাবি নামাজ, কোরআন তিলাওয়াত ও অন্যান্য ইবাদতের দরুন আল্লাহ তাআলা রোজাদার ব্যক্তির আগের সব গুনাহ মাফ করে দেন। এ মর্মে রাসুলুল্লাহ (সা.) বাণী প্রদান করেছেন, ‘যে ব্যক্তি ইমান ও ইহতিসাবের সঙ্গে সওয়াব প্রাপ্তির আশায় রোজা রাখেন, তারাবি নামাজ পড়েন এবং কদরের রাতে জাগ্রত থেকে আল্লাহর ইবাদত করেন, তাঁর জীবনের আগের সব গুনাহ মাফ করা হবে।’ (বুখারি ও মুসলিম)

    রাসুলুল্লাহ (সা.) সর্বদা তারাবি নামাজ আদায় করতেন। তবে তিনি মাত্র চার রাত তারাবি নামাজ জামাতে পড়েছিলেন, আর কখনো তিনি তারাবি নামাজ জামাতে পড়েননি। কারণ, তিনি মনে করেছিলেন যে যদি তিনি সর্বদা জামাতে তারাবি নামাজ আদায় করেন, তাহলে তাঁর উম্মতেরা ভাববেন যে হয়তো এই তারাবি নামাজ ফরজ। হাদিস শরিফে বর্ণিত আছে, ‘রাসুলুল্লাহ (সা.) দুই রাতে ২০ রাকাত করে তারাবি নামাজ পড়িয়েছেন।

    তৃতীয় রাতে লোকজন জমা হলেও রাসুলুল্লাহ (সা.) উপস্থিত হননি। পরদিন সকালে তিনি ইরশাদ করলেন, ‘আমি তোমাদের ওপর তারাবি নামাজ ফরজ হয়ে যাওয়ার আশঙ্কা করেছি। তখন তো তা তোমাদের জন্য কষ্টকর হবে।’ তাই ইচ্ছাকৃত ও নিয়মিত নয়, বরং দৈহিক বা মানসিক অবস্থা বিবেচনা করে ২০ রাকাত অথবা ৮ রাকাত তারাবির সুন্নত নামাজ পড়ার সুযোগ আছে।

    মাহে রমজানে পুরো এক মাস রাতে তারাবি নামাজ জামাতে আদায়ের জন্য ধর্মপ্রাণ রোজাদার মুসল্লিরা প্রতিদিন মসজিদে সমবেত হন। সুদীর্ঘ একটি মাস তাঁদের পরস্পরের মধ্যে দেখা-সাক্ষাৎ হওয়ার ফলে নামাজিদের মধ্যে একে অপরের প্রতি মমত্ববোধ, সম্প্রীতি, ভালোবাসা, ভ্রাতৃত্ববোধ ও সৌহার্দ্য গড়ে ওঠে।

    দেশের প্রতিটি মসজিদে একই পদ্ধতিতে খতমে তারাবি পড়ার লক্ষ্যে ইসলামিক ফাউন্ডেশন বাংলাদেশ রোজার প্রথম ছয় দিন দেড় পারা করে ও পরে লাইলাতুল কদর পর্যন্ত বাকি ২১ দিন এক পারা করে তিলাওয়াত করার নির্দেশনা দিয়েছে। যেন স্থান পরিবর্তন করলেও কোনো মুসল্লি খতমে তারাবিতে কোরআন তিলাওয়াতে শরিক হওয়ার ধারাবাহিকতা থেকে বঞ্চিত না হন। সুতরাং যাঁরা খতমে তারাবিতে শরিক হবেন, যথারীতি তাঁরা এ সম্মানজনক মর্যাদায় ভূষিত হবেন নিঃসন্দেহে।

    রমজান মাসের জন্য নির্দিষ্ট তারাবিহ নামাজ জামাতে পড়া ও সম্পূর্ণ কোরআন শরিফ একবার খতম করা সুন্নাতে মুয়াক্কাদা। রাসুলুল্লাহ (সা.) নিজে তারাবিহ নামাজ পড়েছেন এবং সাহাবায়ে কিরামকে পড়ার জন্য আদেশ দিয়েছেন। তারাবি নামাজ জামাতের সঙ্গে আদায় করা ও কোরআন শরিফ খতম করা অধিক সওয়াবের কাজ। রাসুলুল্লাহ (সা.) তারাবিহ নামাজের জন্য রাতের কোনো বিশেষ সময়কে নির্দিষ্ট করে দেননি। তবে তারাবিহ নামাজ অবশ্যই এশার নামাজের পর থেকে সুবহে সাদিকের পূর্ববর্তী সময়ের মধ্যে আদায় করতে হবে।

    তারাবি নামাজের নিয়তঃ

    نويت ان اصلى لله تعالى ركعتى صلوة التراويح سنة رسول الله تعالى متوجها الى جهة الكعبة الشريفة الله اكبر.
    উচ্চারণ: নাওয়াইতু আন উসাল্লিয়া লিল্লাহি তা’আলা, রকাআতাই সালাতিত তারাবিহ সুন্নাতু রাসুলিল্লাহি তা’আলা, মুতাওয়াজ্জিহান ইলা জিহাতিল কা’বাতিশ শারিফাতি, আল্লাহু আকবার।
    অর্থ: আমি ক্বিবলামুখি হয়ে দু’রাকাআত তারাবিহ সুন্নতে মুয়াক্কাদাহ নামাযের নিয়ত করছি। আল্লাহু আকবার।

    তারাবি নামাজের চার রাকাত পরপর দোয়াঃ

    سبحان ذى الملك والملكوت سبحان ذى العزة والعظمة والهيبة والقدرة والكبرياء والجبروت . سبحان الملك الحى الذى لاينام ولا يموت ابدا ابدا سبوح قدوس ربنا ورب الملئكة والروح.
    উচ্চারণ: সুব্হানাযিল মুলকি ওয়াল মালাকুতি সুবহানাযিল ইযযাতি ওয়াল আযমাতি ওয়াল হাইবাতি ওয়াল কুদরাতি ওয়াল কিবরিয়ায়ি ওয়াল জাবারূত। সুব্হানাল মালিকিল হায়্যিল্লাযি লা-ইয়ানামু ওয়ালা ইয়ামুতু আবাদান আবাদা। সুব্বুহুন কুদ্দুছুন রাব্বুনা ওয়া রাব্বুল মালাইকাতি ওয়ার রূহ।